৩ দফায় পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তনে ক্ষোভ সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের

চলতি মাসের ২ তারিখ থেকে শুরু হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের অনার্স ১ম বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষা। ৪ তারিখ থেকে শুরু হয়েছে অনার্স ৩য় বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষা। এরইমধ্যে পরীক্ষার সময়সূচির ৩ দফায় পরিবর্তন করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। বারবার সময়সূচি পরিবর্তন করায় শিক্ষার্থীদের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, অনার্স ১ম বর্ষের প্রকাশিত সময়সূচির ১২,১৭ ও ২৭ অক্টোবরের পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন করে যথাক্রমে ২০,২৫ ও ২৮ নভেম্বর নেওয়া হয়েছে। অনার্স ৩য় বর্ষের প্রকাশিত সময়সূচির ১৩, ২০ ও ২৩ অক্টোবরের পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন করে যথাক্রমে ৯,২২ ও ১৫ নভেম্বর নেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও মাস্টার্স ১ম পর্ব ১২ অক্টোবরের পরীক্ষা প্রথম  দফায় পরিবর্তন করে ২০ অক্টোবর নেওয়া হয়েছে। একই পরীক্ষা দ্বিতীয় দফায় আবারও পরিবর্তন করে ২৬ নভেম্বর নেওয়া হয়েছে। মাস্টার্স শেষ পর্ব ১৪ অক্টোবরের পরীক্ষা পরিবর্তন করে ২৫ অক্টোবর নেওয়া হয়েছে।

ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী শাখাওয়াত হোসেন বলেন, একমাসে পরীক্ষা শেষ হওয়ার কথা ছিল। বারবার তারিখ পরিবর্তন করে এখন দুই মাসে শেষ হবে পরীক্ষা। একমাসের জন্য মেস ভাড়া নিয়েছিলাম। এখন আরও এক মাসের জন্য ভাড়া নিতে হবে।

ইডেন মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী স্নিগ্ধা আরা বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কি ছুটির তারিখ না দেখেই পরীক্ষার সময়সূচি তৈরি করে? প্রথমে সাত দিনে দিয়েছি তিনটা পরীক্ষা। এখন এক মাস লাগিয়ে দিতে হবে আরো তিনটা পরীক্ষা। এতদিন গ্যাপ দিয়ে পরীক্ষা নিলে আমাদের প্রথম পরীক্ষা গুলোতে আরোও গ্যাপ দিতে পারতো৷

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বাহলুল হক চৌধুরী বলেন, ঢাকা কলেজ অধ্যক্ষ পরীক্ষা পিছাতে অনুরোধ করেছেন। কিছু শিক্ষার্থী গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। শিক্ষার্থীদের কোন অসুবিধা থাকলে আমাদের জানাতে পারে। আমরা বিবেচনা করবো।

Leave A Reply

Your email address will not be published.