অর্থনীতি

স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব এর দৃষ্টি আকর্ষণ : চট্টগ্রাম বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা ও ইউনিয়ন সড়ক প্রশস্তকরণ ও শক্তিশালীকরণ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক-এর নাম প্রস্তাবে ব্যাপক অনিয়ম

  অনক আলী হোসেন শাহিদী ঃ ২৭ ডিসেম্বর ২০২৩ , ৯:৪৮:৫৭ প্রিন্ট সংস্করণ

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)-চট্টগ্রাম বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা ও ইউনিয়ন সড়ক প্রশস্তকরণ ও শক্তিশালীকরণ প্রকল্পের’’-প্রকল্প পরিচালক নিয়োগের লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগে এর নাম প্রেরণে ব্যাপক অনিয়মের আশ্রয় নিয়েছে। অনেক জ্যৈষ্ঠ ও মাঠ পর্যায়ে সততা ও দক্ষতার সাথে কাজ করার জন্যে অভিজ্ঞ উচ্চতর দক্ষতাসম্পন্ন প্রকৌশলী থাকলেও অপেক্ষাকৃত অনেককম অভিজ্ঞতাসম্পন্ন একজন বিতর্কিত নির্বাহী প্রকৌশলীর ১ নং ক্রমিকে প্রেরণ করেছে। ঐ নির্বাহী প্রকৌশলীর নাম এস কে আরিফুল ইসলাম। তিনি বর্তমানে এলজিইডির গাজীপুর জেলা পল্লী অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন।
অনুসন্ধানে জানা যায়- প্রকৌশলী এস কে আরিফুল ইসলাম বরগুনা এলজিইডি দপ্তরে একটি পুকুর খনন প্রকল্পে একজন উপ-সহকারী প্রকৌশলীর মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের নিকট ঘুষ দাবী করলে স্থানীয়ভাবে ব্যাপক তোলপাড় হয়। এ ঘটনাটি যমুনা টিভিতে ২০২১ সালের ২৮ আগষ্ট ব্যাপকভাবে প্রচারিত হয়। এছাড়াও এ সময়ে তিনি বিভিন্ন প্রকল্প পরিদর্শনে গিয়ে বলতেন- ‘‘২৫ লাখ টাকা দিয়ে নির্বাহী প্রকৌশলী হয়েছি- এ টাকা তো আমাকে তুলতে হবে।’’ এমন তথ্য দিয়েছেন স্থানীয় একাধিক সাংবাদিক ও স্থানীয়রা। বর্তমান দেশ প্রেমিক সরকারের অন্যতম উন্নয়ন কার্যক্রমের অংশ হিসেবে-‘‘চট্টগ্রাম বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা ও ইউনিয়ন সড়ক প্রশস্তকরণ ও শক্তিশালীকরণ-’’ শীর্ষক প্রকল্পটি চট্টগ্রামবাসীদের জন্যে অতি গুরুত্বপূর্ণ। এ প্রকল্প বাস্তবায়নে প্রয়োজন অধিকতর দক্ষ ও সৎ একজন প্রকল্প পরিচালক। এ প্রকল্পে প্রকৌশলী চট্টগ্রাম বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা ও এস কে আরিফুল ইসলামের নাম প্রস্তাবের খবরে চট্টগ্রামের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ ও সাংবাদিকেরা অসন্তোষ প্রকাশ করে এ বিষয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিবের সদয় দৃষ্টি আকর্ষণ করে বিতর্কিত প্রকৌশলী এস কে আরিফুল ইসলামকে বাদ দিয়ে যে কোন অভিজ্ঞ ও জ্যৈষ্ঠ প্রকৌশলী নিয়োগের অনুরোধ করেছেন। অনুসন্ধানে জানা যায়- ‘‘চট্টগ্রাম বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা ও ইউনিয়ন সড়ক প্রশস্তকরণ ও শক্তিশালীকরণ প্রকল্পটি তৈরী করেছেন- জ্যৈষ্ঠ প্রকৌশলী মোঃ দেলোয়ার হোসেন মজুমদার। জৈষ্ঠতার ক্ষেত্রে প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেন মজুমদার ১৯৯৪ সালের ১৪’ই জুলাই সহকারী প্রকৌশলী হিসেবে কাজ শুরু করেছেন। অন্যদিকে প্রকৌশলী এস কে আরিফুল ইসলাম জ্যৈষ্ঠতা হিসেবে কাজ শুরু করেছেন ২০০৪ সালের ২৮ জুলাই। জ্যৈষ্ঠতার দিক থেকে প্রকৌশলী এস কে আরিফুল ইসলাম এর চেয়ে প্রায় শতাধিক অভিজ্ঞ প্রকৌশলী থাকলেও শুধু মাত্র এস কে আরিফুল ইসলামের নাম কেন প্রেরণ করা হলো তা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে তদন্তের দাবী জানিয়েছেন পর্যবেক্ষক মহল। উক্ত প্রকল্পে প্রকল্প পরিচালক নিয়োগের জন্যে জাতীয় সংসদের সংসদ সদস্য ও সরকারী প্রতিষ্ঠান কমিটির সভাপতি এবং জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থানীয় কমিটির সদস্য আ স ম ফিরোজ গত ৮ অক্টোবর প্রধান প্রকৌশলী এলজিইডি কে একটি আধা-সরকারী পত্র দিয়েছিলেন। এ পত্রটি ১৮ অক্টোবর দাখিল করা হয়। এলজিইডি প্রধান প্রকৌশলীর দপ্তর-ঐ পত্রের বিষয়ে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেননি। অথচ তার চেয়ে জ্যৈষ্ঠতায় অনেক নিচের একজনের নাম প্রেরণ করা হয়েছে। এ বিষয়ে ঐ সংসদ সদস্য গভীর অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। চট্টগ্রাম বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা ও ইউনিয়ন সড়ক প্রশস্তকরণ ও শক্তিশালী প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক নিয়োগে শতাধিক অভিজ্ঞ প্রকৌশলীর নাম পাশ কাটিয়ে এস কে আরিফুল ইসলামের মত একজন অসৎ ও কম অভিজ্ঞতাসম্পন্ন প্রকৌশলীর নাম কেন প্রেরণ করা হলো? এই প্রতিনিধির এমন প্রশ্নে- কিছুটা নিরব থেকে এলজিইডি প্রধান প্রকৌশলী মোঃ আলি আখতার হোসেন বলেন -‘‘প্রকল্প পরিচালক নিয়োগের প্রস্তাবে প্রেরণে এলজিইডি’র নিজস্ব ম্যানেজমেন্ট রয়েছে। আমরা নাম প্রস্তাব করি। অনুমোদন করে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়।
একটি সূত্রে জানা যায়- আগামী ৩১ ডিসেম্বর উক্ত প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক নিয়োগ এর জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিবের সভাপতিত্বে একটি সভা রয়েছে। ঐ সভায় সিদ্ধান্ত হবে-চট্টগ্রাম বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা ও ইউনিয়ন সড়ক প্রশস্তকরণ ও শক্তিশালীকরণ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক পদে প্রেরিত ৩ জনের নামের মধ্যে কার নাম অনুমোদিত হয়। তবে দেশের উন্নয়নের সফলতা চান- এমন মহল বলেছেন’’- উক্ত প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক নিয়োগের ক্ষেত্রে আরো অনুসন্ধান করা হোক।’’ এ বিষয়ে তারা স্থানীয় সরকার বিভাগ এর সচিবের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।
উল্লেখ যে- সংশ্লিষ্ট প্রকল্পে-প্রকল্প পরিচালক নিয়োগে ১ নং ক্রমিকে থাকা প্রকৌশলী এস কে আরিফুল ইসলাম এর এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি বলেন, যে কোন প্রকল্পে কাজ করার লক্ষ্যে তার ব্যাপক দক্ষতা রয়েছে।

আরও খবর

Sponsered content

আরও খবর: অর্থনীতি

ওসিডিএল এর নেতৃত্বে- নিরাপদ ও লাভজনক আবাসনের প্রতিশ্রুতি নিয়ে আমিন সিটি পূর্বাচলের পথচলা শুরু হয়েছে

রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ে খেললে সরাসরি কারাগারে পাঠানো হবে: গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী

স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব এর দৃষ্টি আকর্ষণ : চট্টগ্রাম বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা ও ইউনিয়ন সড়ক প্রশস্তকরণ ও শক্তিশালীকরণ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক-এর নাম প্রস্তাবে ব্যাপক অনিয়ম

এশিয়ান ক্যান্সার ইনস্টিটিউট বিডি প্রাইভেট লিমিটেড এবার কাজ করছেন মরণব্যাধি ক্যান্সার চিকিৎসা নিয়ে

রিহ্যাব এর বার্ষিক সাধারণ সভা-২০২০ || আবাসন ব্যবসায়ীদের সার্বিক কল্যাণে কাজ করছি – আলমগীর শামসুল আলামিন কাজল রিহ্যাব প্রেসিডেন্ট

জয়িতা আন্বেষণে বাংলাদেশ : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনন্য নেতৃত্ব আমার প্রেরণা, অটিজম বিশেষজ্ঞ সায়মা ওয়াজেদ পুতুলের মানবিক কর্ম আমার এগিয়ে যাওয়া