সালাহর হ্যাটট্রিকে লিভারপুলের বড় হার

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে তারকার দ্বৈরত্বে বিবর্ণ ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর দিনে হ্যাটট্রিকের আলো ছড়ালেন লিভারপুল নায়ক মোহাম্মদ সালাহ। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের জালে গুনে গুনে পাঁচবার বল জড়ালো লিভারপুল।  ৫-০ গোল ব্যবধানে জিতেছে অলরেডরা।

রোববার রাতে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে স্বাগতিকদের কোণঠাসা করে আধিপত্য দেখালো লিভারপুল।  ৫ মিনিটের মধ্যেই নাবি কেইটার গোলে এগিয়ে যায় সফরকারীরা। ১৩ মিনিটে লিড দ্বিগুণ করেন দিয়োগো জোটা। ট্রেন্ট আলেকজান্ডার আর্নল্ডের ক্রস থেকে লিভারপুলকে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে দেন তিনি। ৩৮ মিনিটে নিজের প্রথম এবং দলের হয়ে তৃতীয় গোলটি করেন সালাহ।

সালাহ পরপর ১০ টি ম্যাচে টানা গোল করলেন। তবে সেখানেই থামেননি এই মিশরীয়। প্রথমার্ধের শেষে যোগ করা সময়ে নিজের দ্বিতীয় এবং দলের চতুর্থ গোলটি করে করেন। তাতেই প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে দিদয়ের দ্রোগবাকে টপকে সর্বকালীন সর্বোচ্চ আফ্রিকান গোলদাতাও বনে যান।

অলরেডসদের একের পর এক আক্রমণে অসহায় হয়ে পড়েছিল রেড ডেভিলসের রক্ষণভাগ। এদিন প্রথমার্ধে লাল কার্ডও দেখতে পারতেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে লিভারপুলের কার্টিস জোন্সের সঙ্গে বল দখলের লড়াই লড়তে গিয়ে মাথা গরম করে বসেন পর্তুগিজ তারকা। বল কাড়তে গিয়ে তিনি বাজেভাবে মাটিতে পড়ে যাওয়ার জোন্সের দখলে থাকা বলে লাথি চালান, তাতে করে ম্যাচ রেফারি লাল কার্ড দেখালেও অবাক হওয়ার কিছু ছিল না।

তবে রোনালদো গোল শুণ্য থাকলেও দারুণ উজ্জল ছিলেন সালাহ। দ্বিতীয়ার্ধের ৪৯ তম মিনিটে ডেভিড দে হেয়ার পাস থেকে গোল করে হ্যাটট্রিক সম্পন্ন করেন সালাহ। ৬০ মিনিটে পল পগবা লাল কার্ড দেখলে ম্যান ইউনাইটেড ১০ জনের নেমে যায়।

বিরতিতে পরিবর্ত ফুটবলার হিসেবে নামার পরে তিনি কেইটাকে একটি হাই ট্যাকেল করে বসেন। দ্বিতীয়ার্ধে আর গোল না হওয়াতে ৫-০ গোলেই শেষমেশ ম্যাচ জেতে লিভারপুল।

ইউনাইটেডকে বিধ্বস্ত করে পয়েন্ট টেবিলের দুইয়ে উঠে আসল লিভারপুল। মৌসুমের ৯ম ম্যাচে ৬ষ্ঠ জয় পেল অল রেডরা, সেই সঙ্গে তিন ড্র’তে ২১ পয়েন্ট। সবার শীর্ষে ২২ পয়েন্ট নিয়ে চেলসি। অন্যদিকে ৯ ম্যাচে ৪ জয়, দুই ড্র আর তিন হারে ১ পয়েন্ট নিয়ে সাতে আছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

Leave A Reply

Your email address will not be published.