শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানিয়েছেন, করোনা সংক্রমণের হার সন্তোষজনক পর্যায়ে এলেই মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ধাপে ধাপে খোলা হবে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে স্কুল-কলেজ খোলা হবে না।

রোববার (১৫ আগস্ট) সকালে সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক শিক্ষার্থীদের অধিকাংশকে টিকার আওতায় আনা হয়েছে। তবে ৪০ লাখের উপরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে কবে নাগাদ পুরোপুরি টিকার আওতায় আনা যাবে তা বলা কঠিন।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানিয়েছিলেন, পূর্ব ঘোষণা অনুসারে আগামী নভেম্বরে এসএসসি এবং ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে এইচএসসি পরীক্ষা নেয়ার জন্য সকল প্রস্তুতি রয়েছে আমাদের। এজন্য সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের ওপর বর্তমানে অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম চলছে। আশা করছি, করোনাভাইরাস পরিস্থিতির উন্নতি হলে উল্লেখিত সময়ে দুটি পরীক্ষা আমরা নিতে পারব।

এর আগে আরও দুই দফায় প্রস্তুতি নিয়েও করানোর সংক্রমণের হার বেড়ে যাওয়ায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা সম্ভব হয়নি।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয় এবং এর দশ দিন পর ১৮ মার্চ প্রথম এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হয়। এরপর ওই বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়। পরে দফায় দফায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়িয়ে সর্বশেষ তা আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত করা হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.