শতবর্ষপূর্তিতে শত বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি ঢাবির

শতবর্ষ উদযাপন উপলক্ষে কার্জন হল প্রাঙ্গণে শত বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি উদ্বোধন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান। আজ ১ জুলাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষপূর্তি দিবস উদযাপিত হচ্ছে। ১৯২১ সালের এই দিনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের যাত্রা শুরু হয়েছিল। দিবসটি উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবন প্রাঙ্গণে জাতীয় সংগীত পরিবেশন, জাতীয় পতাকা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলন এবং বেলুন উড্ডয়নের মাধ্যমে দিবসটির প্রতীকী কর্মসূচি শুরু হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান প্রতীকী কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

শিক্ষা ও গবেষণার বিস্তার, মুক্তচিন্তার উন্মেষ ও বিকাশ এবং সৃজনশীল কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে নতুন ও মৌলিক জ্ঞান সৃষ্টির লক্ষ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়। ৩টি অনুষদ, ১২টি বিভাগ, ৬০জন শিক্ষক, ৮৪৭জন শিক্ষার্থী এবং ৩টি আবাসিক হল নিয়ে ১৯২১ সালের ১ জুলাই এই বিশ্ববিদ্যালয়ের যাত্রা শুরু হয়েছিল। আজ তার কলেবর ও পরিসর অনেক বড়। বর্তমানে ১৩টি অনুষদ, ৮৪টি বিভাগ, ১৩টি ইনস্টিটিউট, ১৯৮৬জন শিক্ষক, প্রায় ৪৭হাজার শিক্ষার্থী এবং ১৯টি আবাসিক হল ও ৪টি হোস্টেল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এছাড়াও রয়েছে দেড় শতাধিক বিভিন্ন একাডেমিক ঘরানার অধিভুক্ত/ উপাদানকল্প শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

দিবসটি উপলক্ষে পুরো ক্যাম্পাস সেজেছে বর্ণিল সাজে। বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হল, কলাভবন, ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ভবনকে সাজানো হয়েছে নানা রঙ-বেরঙের বাতি দিয়ে। বুধবার শতবছর পূর্তির রাতে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন ভবন ফুটে উঠে বর্ণিল আলোয়। করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে অনেকটাই স্থবির হয়ে আছে সবকিছু।

চলমান মহামারির কারণে মূল অনুষ্ঠানের অগ্রবর্তী অনুষ্ঠান হিসেবে দিবসটিকে আজ প্রতীকী কর্মসূচির মাধ্যমে উদযাপন করছে বিশ্ববিদ্যালয়টি।

এ উপলক্ষে আজ বিকেল ৪টায় অধ্যাপক আব্দুল মতিন চৌধুরী ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এতে মূল বক্তা হিসেবে সংযুক্ত থাকবেন বিশিষ্ট ভাষাসৈনিক, কলামিস্ট ও বুদ্ধিজীবী আবদুল গাফ্ফার চৌধুরী। তিনি ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষ: ফিরে দেখা’ শীর্ষক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন।

ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান শতবর্ষ উপলক্ষে বলেন, শতবর্ষের বর্ণাঢ্য ও জাঁকজমকপূর্ণ মূল অনুষ্ঠান আগামী ১ নভেম্বর ২০২১ তারিখে অনুষ্ঠিত হবে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় চ্যান্সেলর জনাব মো. আবদুল হামিদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শতবর্ষের মূল অনুষ্ঠান উদ্বোধন করতে সানুগ্রহ সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন।

উল্লেখ্য, আজ বিকেল ৪টায় ভার্চুয়াল আলোচনাসভা ফেসবুকে সরাসরি সম্প্রচার করা হবে। ফেসবুক লিংক https://www.facebook.com/ICTCellDU।

Leave A Reply

Your email address will not be published.