রেশনিং পদ্ধতিতে ১ হাজার অসহায় মানুষকে ঈদ উপহার দিলো যুবলীগ

বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ মাইনুল হোসেন খান নিখিলের নেতৃত্বে অসহায়, দুস্থ, প্রতিবন্ধী এক হাজার মানুষের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার হিসেবে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী সারোয়ার হোসেন বাবু।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) পুরান ঢাকার সূত্রাপুর থানাধীন কে এল জুবলী স্কুল এন্ড কলেজের মাঠে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশে যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ ও সাধারণ সম্পাদ মোঃ মাইনুল হোসেন খান নিখিলের নেতৃত্বে ঈদ উপহার হিসেবে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

খাদ্য সামগ্রী মধ্যে রয়েছে, চাল-ডাল, সেমাই-চিনি, তেল, আলু,পেয়াজ, আদা-রসুন ইত্যাদি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো: মাইনুল হোসেন খান নিখিল। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আসুন এই দুর্যোগে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াই। প্রত্যেকটি নেতাকর্মীর কাছে অনুরোধ থাকবে গাজী সারোয়ার হোসেন বাবুর মত অসহায় মানুষের পাশে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য। বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার আদর্শ ধারণ করে সততাই শক্তির মানবতার মুক্তি এই স্লোগানকে ধারণ করে সৎপথে উপার্জন করে দুর্যোগকালীন সময়ে যুবলীগের নেতাকর্মী মানুষকে সাহায্য করে আসছে। সৎপথে উপার্জন করে মানুষের কল্যাণে ব্যয় করাই যুবলীগের ধর্ম।

তিনি বলেন, করোনাকালীন এই দুর্যোগে যখন সারাদেশে আওয়ামী লীগের বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা মানুষের কল্যাণে নিয়োজিত তখনি ষড়যন্ত্রকারী দল বিএনপি আবার ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। তারা দেশ ও মানুষকে ভালোবাসে না, তারা ক্ষমতাকে ভালোবাসে। যাদের ষড়যন্ত্রই মূলশক্তি এবং ক্ষমতায় বিশ্বাসী তারা এই মহামারীর মধ্যেও ষড়যন্ত্র ও মিথ্যাচার চালিয়ে গিয়েছে। তারা চায় করোনা মহামারী আরো ছড়িয়ে পড়ুক, দেশের মানুষ না খেয়ে মারা যাক। এজন্যই দুর্যোগকালীন সময়ে তারা মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে মিথ্যাচার সমালোচনায় লিপ্ত থেকেছে।

যুবলীগের নেতাকর্মীদের বিএনপি জামাতের ষড়যন্ত্রের বিষয়ে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা রাজনীতি করে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি, শেখ হাসিনার মানব কল্যাণের রাজনীতি। কোনো ষড়যন্ত্রই আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মানব কল্যাণ থেকে দূরে সরিয়ে রাখতে পারবেনা। সামনে যে লকডাউন আসবে এই লকডাউনে যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশের নেতৃত্বে যুবলীগের নেতাকর্মীরা সারাদেশের অসহায় মানুষের পাশে থাকতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাইনউদ্দিন রানার সভাপতিত্বে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজার সঞ্চালনায় ও সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী সারোয়ার হোসেন বাবুর সার্বিক তত্ত্বাবধানে উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুবলীগের প্রসিডিয়াম সদস্য এড. মামুনুর রশীদ, ডা. খালেদ শওকত আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক জহির উদ্দিন খসরু, প্রচার সম্পাদক জয়দেব নন্দী, মুক্তিযু্দ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মো: আব্দুল মুকিত চৌধুরী, উপ-তথ্য ও যোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক এন আই আহমেদ সৈকত, সহ সম্পাদক আবির মাহমুদ ইমরান, কার্যনিবাহী সদস্য কামাল হোসেন চৌধুরী মুক্তারসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সহ সভাপতি নাজমুল হোসেন টুটুল, সাংগঠনিক সম্পাদক মাকসুদুর রহমান, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য এমদাদুল হক, ফিরোজ উদ্দিন আহমেদ সায়মন, খন্দকার আরিফউজ্জামান আরিফ, আলতাফ হোসেন, শাহজালাল রিপন, মিলন কান্তি রায়, জাহাঙ্গীর আলম মোল্লা, নজরুল ইসলাম, হাবিবুর রহমান পারভেজ, এম আর মিঠু, এ আর বাচ্চু, দক্ষিন যুবলীগ নেতা কাউসার হক, এফ এইচ পল্লব, সজীব হোসেন সহ মহানগর ও বিভিন্ন ওয়ার্ড যুবলীগের নেতৃবৃন্দ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.