রাস্তায় মাথায় হাত দিয়ে বসে পড়লেন শ্রীলেখা

চলচ্চিত্র উৎসবে অংশ নিতে বর্তমানে ইতালির ভেনিস শহরে আছেন টালিউড অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। সেখান থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রতিনিয়ত নিজের আপডেট ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করছেন তিনি।

রবিবার একটি ছবি পোস্ট করেছেন শ্রীলেখা। ছবিতে দেখা যায়, মাথায় হাত দিয়ে ফুটপাতে বসে আছেন তিনি। দেখে মনে হচ্ছে যেন সর্বস্ব খুইয়েছেন এই অভিনেত্রী।

জানা গেছে, ভারত সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী করোনা আবহে বিদেশ ভ্রমণ শেষে দেশে ফিরতে হলে আরটিপিসিআর এর নেগেটিভ রিপোর্ট থাকতে হবে। এই রিপোর্ট ছাড়া নিজ দেশে ফিরতে পারবেন না শ্রীলেখা। আর তাই পরীক্ষা করিয়েছেন তিনি। কিন্তু সেই পরীক্ষার খরচে মাথায় হাত পরেছে অভিনেত্রীর।

ফুটপাতে মাথায় হাত দিয়ে বসে থাকা ছবিটি পোস্ট করে ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ‘আরটিপিসিআর টেস্ট ১১২ ইউরো অর্থাৎ ১০ হাজার রুপি। মাথায় হাত ভেনিস (না ফেরত) অভিনেত্রীর।’

তবে শ্রীলেখার ছবি আর এমন ক্যাপশনে বেশ মজাই পেয়েছেন তার ভক্ত-অনুরাগীরা। সেই পোস্টের কমেন্টবক্সে চোখ রাখলেই সেটি স্পষ্ট বোঝা যায়।

গেলো সোমবার এক পোস্টে নিজেকে দেউলিয়া ঘোষণা করেন শ্রীলেখা। নীল সমুদ্রের মাঝে বোট ট্যাক্সিতে চড়ার ছবি ও ভিডিও পোস্ট করে ক্যাপশনে লেখেন, ‘৬০ ইউরো দিয়ে প্রাইভেট বোট ট্যাক্সি ভাড়া করে লিডো থেকে ভেনিসে যাচ্ছি। দেউলিয়া হয়ে গেলাম।’

এর আগে ভেনিসের একটি রেস্তোরাঁয় ডিনার সারতে গিয়েছিলেন শ্রীলেখা। সেসময় এক যুবককে দেখে চোখ আটকে যায় তার। ওই যুবকের কথাতেই অর্ডার দিয়ে ফেলেন একটি মাছের রেসিপি। জমিয়ে খানাপিনা শেষ করার পর বিল পেয়ে শ্রীলেখা বুঝতে পারেন, সুন্দর ব্যাপারটা আসলে কতটা ভয়ঙ্কর!

খাবারের বিলের অঙ্ক দেখে অভিনেত্রীর চক্ষু চড়কগাছ। কারণ বিল হয়েছে ৬৩.২০ ইউরো (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৫ হাজার ৩৮৫ টাকা)। সোশ্যাল মিডিয়ায় খাবার ও বিলের কপির পাশাপাশি সেই যুবকের সঙ্গে তোলা সেলফিও পোস্ট করেছেন শ্রীলেখা। আর ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘এই সেই কালনাগিনী মাছ। সুন্দর ছেলে দেখে দাম জিজ্ঞেস না করার ফলে এই বিল।’

শোনা যায়, রেস্তোরাঁর সুদর্শন সেই যুবক শ্রীলেখাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছেন। তার সঙ্গে আলাপ করে শ্রীলেখা জানতে পারেন, রেস্তোরাঁর কাজের পাশাপাশি মডেলিং করেন তিনি। তার আর শ্রীলেখার জুটি ভালো জমবে।

তাহলে কি মন গললো শ্রীলেখার? তিনিও কি এই প্রস্তাবে রাজি? বিদেশ থেকে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে শ্রীলেখা বলেন, ‘মাথা খারাপ? কুকুর আর নিজের মেয়েকে সামলানোর পর অত ছোট প্রেমিককে সামলাতে পারব না! ও আমার মেয়ের প্রেমিক হওয়ার যোগ্য!’

Leave A Reply

Your email address will not be published.