রাজধানীতে গ্রেপ্তার কয়েকশ

এরমধ্যে তেজগাঁও থানা এলাকায় ৩০ জন, শিল্পাঞ্চল থানা ৮ জন, মোহাম্মদপুর ২৬ জন, আদাবর থানা ১৮ জন, শেরে বাংলা নগর থানা ৪০ জন এবং হাতিরঝিল থানা পুলিশ ৪২ জন গ্রেপ্তার হয়েছেন।

অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মৃত্যুঞ্জয় দে সজল গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে সরকারি আদেশ অমান্য করায় দণ্ডবিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। পুলিশের মিরপুর বিভাগের উপ-কমিশনার মাহতাব উদ্দিন গণমাধ্যমকে জানান, কঠোর লকডাউনের মধ্যে ‘অপ্রয়োজনে’ বের হওয়ায় তার এলাকার বিভিন্ন থানায় দুপুর পর্যন্ত একশর বেশি মানুষকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

দারুস সালাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোফায়েল আহমেদ বলেন, এই পর্যন্ত ৩৬টি মামলা হয়েছে এবং জরিমানা আদায় হয়েছে ৯৯ হাজার টাকা। আরও আটক হচ্ছে এবং সংখ্যা আপডেট হচ্ছে।

মহানগর পুলিশের উত্তরা বিভাগের বিভিন্ন এলাকায় ৪১ জনকে গ্রেপ্তার করার কথা জানিয়েছেন উপ কমিশনার সাইফুল ইসলাম।

তিনি বলেন, গ্রেপ্তারদের সাতজনকে জরিমানা করা হয়েছে। বাকিদের মুচলেকা রেখে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

রমনা বিভাগের পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার হারুন অর রশীদ জানান, সকালে রমনা থানার সুগন্ধা মোড় থেকে দুইজন এবং শাহবাগ মোড় থেকে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মোহাম্মদপুর জোনের সহকারী কমিশনার মাহিন ফারাজী বলেন, আমরা এখন পর্যন্ত ১০ জনকে অপ্রয়োজনীয় চলাফেরার অভিযোগে গ্রেপ্তার করেছি। এর মধ্যে রায়েরবাজার থেকে ৭ জন এবং তিন রাস্তার মোড় থেকে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার ভোর থেকে শুরু হওয়া ‘লকডাউন’ ৭ জুলাই পর্যন্ত চলবে বলে সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে। লকডাউন বাস্তবায়নে সারাদেশে পুলিশ, বিজিবির পাশাপাশি সেনাবাহিনী মাঠে রয়েছে। ম্যাজিস্ট্রেটও কাজ করছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.