যুক্তরাষ্ট্রসহ ১০ দেশের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করল তুরস্ক

যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডাসহ ১০টি দেশের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করেছে তুরস্ক। গতকাল শনিবার তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান এ নির্দেশ দেন। খবর- আলজাজিরা।

আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যম জানায়, তুরস্কের কারাগারে বিনা বিচারে প্রায় চার বছর ধরে বন্দি নাগরিক অধিকার আন্দোলনের এক কর্মীকে নিয়ে ওই দেশগুলোর সঙ্গে বিরোধের জেরে এরদোয়ান এ পদক্ষেপ নিয়েছেন। সরকারবিরোধী আন্দোলন ও অভ্যুত্থানের অভিযোগে ওসমান কাভালা নামের ওই অ্যাক্টিভিস্টকে আটক করা হয়।

যে দেশগুলোর রাষ্ট্রদূতদের বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে সেগুলো হলো- যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ফিনল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, ফিনল্যান্ড, ডেনমার্ক, নেদারল্যান্ডস, নরওয়ে, ফ্রান্স ও সুইডেন।

প্যারিসে জন্ম নেয়া এ অধিকারকর্মী ওসমানকে ২০১৭ সাল থেকে কারাগারে রেখেছে এরদোয়ান প্রশাসন। তার বিরুদ্ধে ২০১৬ সালে এরদোয়ান সরকারকে উত্খাতে যে ব্যর্থ অভ্যুত্থান হয়, তাতে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়েছে।

গত সোমবার ওই ১০টি দেশের কূটনীতিকরা ওসমানের বিচার দ্রুত শেষ করার আহ্বান জানিয়ে একটি যৌথ বিবৃতি দেন। এতে ক্ষুব্ধ হন এরদোয়ান।

গতকাল এক সমাবেশে এরদোয়ান জানান, তিনি তার পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে ওই ১০টি দেশের রাষ্ট্রদূতদের দ্রুত সময়ের মধ্যে অবাঞ্ছিত (পার্সোনা নন গ্রাটা) ঘোষণা করতে বলেছেন। তিনি বলেন, তারা যেদিন থেকে তুরস্ককে চিনবে না, সেদিনই তাদের তুরস্ক থেকে চলে যেতে হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.