মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায়

উত্তরের জেলা পঞ্চগড় একটি শীতপ্রবণ জেলা। বরাবরই এ জেলাগুলোতে শীতের তীব্রতা বেশি থাকে। হিমালয় কাছাকাছি হওয়ায় নভেম্বর মাস থেকে শীতের প্রকোপ শুরু হয়। তবে এবার অক্টোবর মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে কুয়াশা পড়তে শুরু করে। রোববার (৩১ অক্টোবর) মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় বিরাজ করছে ১৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল শনিবার তাপমাত্রা ছিল ১৬ দশমিক ৬ ডিগ্রি। গভীর রাত থেকে ভোর পর্যন্ত কুয়াশা পড়তে দেখা গেছে। ধীরে ধীরে শীতের আমেজ শুরু হচ্ছে এই জেলায়। সন্ধ্যা হলেই শীতের তীব্রতা বাড়তে থাকে।

প্রতিদিনই সন্ধ্যার পর কুয়াশার সঙ্গে ঠাণ্ডা বাতাস বইছে পঞ্চগড়ে। ভোর ৫টা থেকে কুয়াশার ঘনত্ব বেড়ে যায়। তখন হেডলাইট জ্বালিয়ে যানবাহন চলাফেরা করে। কুয়াশার কারণে নদী তীরবর্তী মানুষেরা দুর্ভোগে পড়ে। তবে সূর্য ওঠার সঙ্গে সঙ্গে কুয়াশা চলে যায়।

এদিকে দিনের তাপমাত্রাও কমতে শুরু করেছে পঞ্চগড়ে। সপ্তাহ জুড়ে ২৮ থেকে ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস বিরাজ করছিল পঞ্চগড় জেলায়। অক্টোবরের মাঝামাঝি তাপমাত্রা ছিল ৩৫ থেকে ৩৮ ডিগ্রিতে। গতকাল দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩ দশমিক ৪ ডিগ্রি। দুপুরে গরম থাকলেও সকাল এবং বিকেলে রোদের তীব্রতা কম।

সদর উপজেলার হাড়িভাষা ইউনিয়নের হালুয়াপাড়া গ্রামের কৃষক লিটন সরকার আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, গত কয়েক দিন ধরে গরম কাপড় ছাড়া সন্ধ্যার পর বাইরে বের হতে পারছি না। এ বছর একটু আগেভাগেই শীত পড়েছে।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাসেল শাহ আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, এ বছর অক্টোবর মাসের মাঝামাঝি থেকেই শীতের আমেজ তৈরি হয়েছে। মূলত হিমালয় কাছাকাছি হওয়ায় শীতের প্রকোপ পড়তে শুরু করেছে। মৌসুমীর বায়ুর প্রভাবে ধীরে ধীরে ঠাণ্ডা পড়তে শুরু করেছে। নভেম্বরের শুরুতে কুয়াশার পরিমাণ বাড়তে পারে, সেই সঙ্গে কমবে তাপমাত্রাও। মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ঠাণ্ডা বাতাসের কারণে রাতে শীত বেশি অনুভূত হচ্ছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.