মার্তিনেজের গোলে আর্জেন্টিনার জয়

যে কাজটি এতো দিন পারেনি হিগুয়েইন আগুয়েরো সে কাজটি করেই আর্জেন্টিনাকে জেতালেন লাওতারো মার্তিনেজ। নিজের খেলায় শেষ আট ম্যাচে ছয় গোল দিয়ে রীতিমতো জায়গা করে নিচ্ছেন আর্জেন্টিনা দলের ভরসার জায়গায়। নিজেদের মাঠে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের খেলায় পেরুকে ১-০ গোলে হারায় লিওনেল মেসির দল। এ জয়ে কাতার বিশ্বকাপে নিজেদের জায়গাটা আরও একটু জোরালো করলো আর্জেন্টিনা।

এ ম্যাচে চোট থেকে একাদশে ফেরেন সেভিয়ার মার্কোস আকুনিয়াক। ৪-৩-৩ ফরম্যাশনে খেলা আর্জেন্টাইন শিবির প্রথম থেকেই ছিলো আক্রমনাত্মক। ম্যাচের শুরু থেকেই মাঝ মাঠের দখল নিয়ে নেন দি পল। তবে সুযোগ পেয়েছিলো পেরুও। জিয়ানলুকা লাপাদুলা গোলবারের কাছে ফ্রি কিক পেয়েও ব্যর্থ হয় গোল করতে। এছাড়া সিউর গোল বলতে যেটা বোঝায় সেই পেনাল্টির সুযোগ পেয়েও হারায় পেরু। ৬৬ মিনিটে পেনাল্টি পাওয়া পেরু মিডফিল্ডার ইয়োশিমার ইয়োতুনের ব্যর্থতায় সে সুযোগ মিস করে সফরকারিরা।

প্রথমার্ধে আর্জেন্টিনা গোল করার এক সহজ সুযোগ মিস করে। রদ্রিগো দি পলের ক্রসে গোল পেলেও তা অফ সাইডের কারণে বাতিল হয়ে যায়। তবে কোচ লিওনেল স্কোলোনিকে বেশিক্ষণ অপেক্ষা করায়নি কার শিষ্যরা। ৪২ মিনিটে রাইটব্যাক নাহুয়েল মলিনার দেয়া ক্রসে দুর্দান্ত হেডে আকাশী সাদা শিবিরে প্রথম গোলের স্বাদ দেয় ইন্টার মিলান স্ট্রাইকার লাওতারো মার্তিনেজ।

এরআগে কোচ স্কলোনির অধীনে খেলা আর কোর স্ট্রাইকার এতোটা সফলতা পায়নি যা পেয়েছে মার্তিনেজ। ৩৩ ম্যাচে করেছেন ১৭ গোল। তাই বলাই যায় মার্তিনেজের এই পারফরমেন্স কোচে মাথা থেকে স্ট্রাইকার নিয়ে একটু হলেও চিন্তা কমিয়েছে এই ইন্টার তারকা।

কোচ লিওনেল স্কালোনির অধীনে অসাধারণ খেলছেন লাওতারো মার্তিনেজ। ৩৩ ম্যাচে এই নিয়ে ১৭ গোল করা হয়ে গেল তার। স্কালোনির অধীনে কোন স্ট্রাইকার এত বেশি গোল করেননি। আদর্শ স্ট্রাইকারের মতো স্কালোনির চিন্তা দূর করছেন এই ইন্টার তারকা।

বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে এ জয়ে ১১ ম্যাচে ২৫ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের দুইয়ে রয়েছে মেসির দল। আর সমান ম্যাচে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে টেবিল টপার ব্রাজিল।

Leave A Reply

Your email address will not be published.