বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৪০ লাখ ৬৫ হাজার ছাড়াল

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এবং মৃত্যুর সংখ্যা আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। সর্বশেষ গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৮ হাজার ৪৬ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় মৃত্যু বেড়েছে প্রায় ২ হাজার। এতে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৪০ লাখ ৬৫ হাজার ৩২৪ জনে।

একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৩ হাজার ২৩৭ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ১ লাখ ২৬ হাজার। এতে মহামারির শুরু থেকে ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮ কোটি ৮৫ লাখ ৭৮ হাজার ৯৪৩ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৭ কোটি ২৪ লাখ ৬ হাজার ২৬৩ জন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার থেকে বুধবার (১৪ জুলাই) সকালে এই তথ্য জানা গেছে।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ৪৮ লাখ ৭ হাজার ৮১৩ জন আর মারা গেছেন ৬ লাখ ২৩ হাজার ৪৩৫ জন।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ৯৪ লাখ ৪ হাজার ৯৪০ জনে। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ১১ হাজার ৪৩৯ জনের।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী ১ কোটি ৯১ লাখ ৫২ হাজার ৬৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৩৫ হাজার ৯২৪ জনের।

গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ ইন্দোনেশিয়ায়। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৮৬৪ জন এবং নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৭ হাজার ৮৯৯ জন। অপরদিকে মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২৬ লাখ ১৫ হাজার ৫২৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬৮ হাজার ২১৯ জনের।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২০৩ জন মারা গেছেন। এখন পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা ১৬ হাজার ৮৪২ জন। একই সময় শনাক্ত হয়েছেন ১২ হাজার ১৯৮ জন।শনাক্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১০ লাখ ৪৭ হাজার ১৫৫ জনে।

এছাড়া এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে ৫৮ লাখ ২০ হাজার ৮৪৯ জন, রাশিয়ায় ৫৮ লাখ ৩৩ হাজার ১৭৫ জন, যুক্তরাজ্যে ৫১ লাখ ৯১ হাজার ৪৫৯ জন, ইতালিতে ৪২ লাখ ৭৩ হাজার ৬৯৩ জন, তুরস্কে ৫৪ লাখ ৯৩ হাজার ২৪৪ জন, স্পেনে ৪০ লাখ ১৫ হাজার ৮৪ জন, জার্মানিতে ৩৭ লাখ ৪৫ হাজার ২৮৭ জন এবং মেক্সিকোতে ২৫ লাখ ৯৩ হাজার ৫৭৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

অন্যদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে এক লাখ ১১ হাজার ৪০৭ জন, রাশিয়ায় এক লাখ ৪৪ হাজার ৪৯২ জন, যুক্তরাজ্যে এক লাখ ২৮ হাজার ৪৮১ জন, ইতালিতে এক লাখ ২৭ হাজার ৮০৮ জন, তুরস্কে ৫০ হাজার ৩২৪ জন, স্পেনে ৮১ হাজার ৩৩ জন, জার্মানিতে ৯১ হাজার ৭৯৯ জন এবং মেক্সিকোতে ২ লাখ ৩৫ হাজার ৫৮ জন মারা গেছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

Leave A Reply

Your email address will not be published.