বিশ্বকাপের চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত বাংলাদেশ

মঞ্চ তৈরি। প্রস্তুত ক্রিকেটাররাও। আর শুধু কিছু সময়ের অপেক্ষা। এরপরেই মাঠে গড়াবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ওমান পর্ব দিয়ে আগামীকাল রোববার শুরু হতে যাচ্ছে ক্রিকেটের এই মেগা ইভেন্ট। আসরের প্রথম দিনই মাঠে নামছে বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ড। ম্যাচ শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায়।

ঘরের মাঠ থেকে টি-টোয়েন্টিতে বেশ সুখকর স্মৃতি নিয়ে ওমান পাড়ি দিয়েছে বাংলাদেশ। কিন্তু মূল টুর্নামেন্টের আগে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচেই চরম ব্যর্থ ছিল বাংলাদেশ। হেরেছে দুটিতেই। তাই স্বাভাবিকভাবে টুর্নামেন্ট শুরুর আগে চিন্তা কাজ করছে। তবে দলের সঙ্গে থাকা নির্বাচক হাবিবুল বাশার স্পষ্ট জানিয়েছেন, তাঁদের দল আত্মবিশ্বাসী। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত বাংলাদেশ।

ওমানে গিয়ে প্রথমে একটি আনঅফিশিয়াল ম্যাচ খেলে বাংলাদেশ। সেটি ভালোই কাটে। ওমান ‘এ’ দলের বিপক্ষে ২০০ ছাড়ানো স্কোর গড়ে বড় ব্যবধানে জেতে বাংলাদেশ। কিন্তু অফিশিয়াল প্রস্তুতি ম্যাচে দেখা যায় উল্টো চিত্র। আবুধাবিতে প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার কাছে হারে বাংলাদেশ। এরপর আয়ারল্যান্ডের কাছেও পাত্তা পায়নি বাংলাদেশ। সবমিলে মূল টুর্নামেন্টের আগে কিছুটা নড়বড়ে হলো প্রস্তুতি।

তবে এই ব্যর্থতা নিয়ে না ভেবে মূল টুর্নামেন্টেই ফোকাস রাখছে বাংলাদেশ। হাবিবুল বাশারের কথায়, ‘আমরা এর আগে দেশের মাঠে সিরিজে বেশ ভালো ক্রিকেট খেলে এসেছি। দলও যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী। প্রস্তুতি ম্যাচ প্রস্তুতি ম্যাচই, সেটা নিয়ে খুব বেশি বিচার করতে চাচ্ছি না। খুব বেশি ভাবনাও ভাবতে চাচ্ছি না। আমাদের খুব ভালো ধারণা হয়ে গেছে যে আমরা বিশ্বকাপে কীসের মুখোমুখি হতে পারি, কত বড় চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে পারি। আমার মনে হয়, আমরা প্রস্তুত। যখন প্রাথমিক রাউন্ডের খেলা শুরু হবে, সেরা পারফরম্যান্সটাই আমরা দেখাতে পারব বলে মনে করি।’

বিসিবির নির্বাচক আরও বলেন, ‘প্রথম ম্যাচ যেটা খেললাম ওমানে, সব ভালো ছিল। ব্যাটিং-বোলিং, দুটোই ভালো হয়েছিল। আবু ধাবির প্রস্তুতি ম্যাচে প্রত্যাশা অবশ্যই আরেকটু বেশি ছিল। যদিও প্র্যাকটিস ম্যাচ ছিল, কিছু জিনিস আমরা পরখ করে দেখেছি। আমাদের মূল একাদশ ছিল না। মুস্তাফিজ মাত্র আইপিএল থেকে ফিরল, সাকিবকে পাইনি, অধিনায়ক (মাহমুদউল্লাহ) কোনো ম্যাচ খেলতে পারেনি। সব মিলিয়ে মূল একাদশ পাইনি।’

‘আমাদের দেখার ছিল, বাকিরা সুযোগটা কেমন নিতে পারে। অবশ্যই আরেকটু ভালো আশা করেছিলাম। বিশেষ করে ব্যাটিংয়ে। কারণ আবু ধাবির ব্যাটিং কন্ডিশন ভালো ছিল। সেখানে টপ অর্ডারে কারও বড় রান হলে ভালো হতো। এমনিতে দল হিসেবে আমার মনে হয় আমরা ভালো আছি। সবাই বেশ আত্মবিশ্বাসী। তবে অবশ্যই গা গরমের ম্যাচগুলো ভালো খেললে প্রস্তুতি আরেকটু ভালো হতো।’—যোগ করেন বিসিবির এই নির্বাচক।

এবারের বিশ্বকাপে প্রাথমিক পর্বের দুই গ্রুপে অংশ নেবে আটটি দল। দলগুলো হলো—বাংলাদেশ, আয়ারল্যান্ড, নামিবিয়া, নেদারল্যান্ডস, ওমান, পাপুয়া নিউগিনি, স্কটল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কা। প্রথম রাউন্ডে ভালো করে দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করতে হবে বাংলাদেশসহ এই আট দলকে।

অন্যদিকে, সুপার টুয়েলভে দুই গ্রুপে আছে আফগানিস্তান, অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, ভারত, নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তাদের সঙ্গে যোগ দেবে প্রাথমিক পর্বের সেরা চার দল।

আগামীকাল থেকে ওমান পর্ব দিয়ে মাঠে গড়াবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ডের খেলা। প্রথম রাউন্ডের উদ্বোধনী দিনেই মাঠে নামবে বাংলাদেশ। প্রথম দিনে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ড।

দ্বিতীয় রাউন্ড গড়াবে ২৩ অক্টোবর থেকে। ওই দিন অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকার লড়াই দিয়ে শুরু হবে বিশ্বকাপের দ্বিতীয় পর্ব। একই দিনে মাঠে নামবে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.