বিদেশে কর্মরত সাড়ে ছয় লাখ মহিলাকর্মীর বিষয়ে সতর্ক থাকতে বলেছে সংসদীয় কমিটি

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশের প্রায় সাড়ে ছয় লাখ মহিলা কর্মী কর্মরত রয়েছেন। ‘দুই একটি’ বিচ্ছিন্ন ঘটনায় ভুলভাবে সংবাদ পরিবেশনের কারণে অনেকে তাদের দেশে ফিরিয়ে আনার দাবি উত্থাপন করেন। এ বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছে সংসদীয় কমিটি।

আজ বুধবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এই পরমর্শ দেওয়া হয়। কমিটির সভাপতি মুহাম্মদ ফারুক খানের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, নূরুল ইসলাম নাহিদ, গোলাম ফারুক খন্দকার প্রিন্স, মো. আব্দুল মজিদ খান ও মো. হাবিবে মিল্লাত এবং সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে জানানো হয়, চলমান মহামারীর কারণে যেসব অভিবাসী কর্মী তাদের স্ব স্ব কর্মস্থলে ফেরত যেতে পারেনি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় স্বাগতিক দেশসমূহের সাথে ফলপ্রসু কূটনৈতিক যোগাযোগের মাধ্যমে মেয়াদোত্তীর্ণ ভিসা, ইকামা ইত্যাদির মেয়াদ বাড়িয়ে বিশেষ ফ্লাইটযোগে অভিবাসী কর্মীদের প্রত্যাবর্তনের ব্যবস্থা করে। ইতালি, যুক্তরাজ্য, স্পেন, পর্তুগাল, ফ্রান্স, গ্রিস, ওমান ও সৌদি আরবে বিশেষ ফ্লাইটযোগে দুই হাজার ৫৬০ জন আটকে পড়া প্রবাসী বাংলাদেশীদের প্রত্যাবাসন করা হয়েছে।

আরো জানানো হয়, করোনার কারণে কর্মহীন প্রবাসীদের নতুন কর্মসংস্থান তৈরি, আটকেপড়া বাংলাদেশি নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে আনা, দেশে আটকে পড়া প্রবাসীদের স্ব স্ব কর্মস্থলে পাঠানো এবং বিশেষ বিমান চলাচলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া বিদেশে বাংলাদেশি মিশনগুলোতে একাধিক মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করলেও ‘এক দেশ এক মিশন’ সংস্কৃতির ভিত্তিতে সম্মিলিত প্রয়াস অব্যাহত থাকায় করোনা পরিস্থিতিতে সৃষ্ট চ্যালেঞ্জসমূহ সাফল্যের সাথে মোকাবেলা করা সম্ভব হচ্ছে।

কমিটি সূত্র জানায়, বৈঠকে আলোচনা শেষে করোনাভাইরাসযুক্ত পরিবেশে নতুন প্রেক্ষাপটে এ পরিবেশের সাথে সমন্বয় করে অর্থনীতির চাকা সচল রাখার সুপারিশ করা হয়। এজন্য বিশ্বের সাথে যোগাযোগ রেখে অর্থনৈতিক কূটনীতি জোরদারের জন্য বাংলাদেশে তৈরি পণ্য রপ্তানির ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়। এ বিষয়ে বৈঠকে বিদেশে বাংলাদেশের মিশনগুলোকে সে দেশের চাহিদা নিরুপণ করে বাংলাদেশকে জানানোর এবং সে আলোকে রুপরেখা প্রণয়ন করে একটি পরিকল্পনা গ্রহণের মাধ্যমে তা বাস্তবায়নের ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়।

এছাড়া বৈঠকে কানাডা ও ইন্দোনেশিয়ার বাংলাদেশি মিশনে নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূতরা সে দেশে তাদের করণীয় বিষয়ে রুপরেখা উপস্থাপন করেন। এ বিষয়ে আলোচনাকালে কমিটির পক্ষ থেকে ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রদূত এয়ার ভাইস মার্শাল মোস্তাফিজুর রহমানকে রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পক্ষে ইন্দোনেশিয়ার সমর্থন আদায়ে কাজ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন
Loading...