বান্দরবানে প্রবল বর্ষণে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, পানিবন্দি মানুষ

বান্দরবানে প্রবল বর্ষণের কারণে মাতামুহুরী ও সাঙ্গু নদীর পানি বিপদ সীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এ সময় প্লাবিত হয়েছে লামা, আলীকদম, নাইক্ষ্যংছড়ি, থানচিসহ জেলা শহরের বেশ কিছু এলাকা।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) সকালে সরেজমিনে গিয়ে এই চিত্র দেখা যায়। এ সময় পানিবন্দি হয়ে পড়েছে প্রায় অর্ধ-লক্ষাধিক মানুষ।

জানা গেছে, এরই মধ্যে জেলা সদরের সঙ্গে ৭টি উপজেলার সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। ভারী বর্ষণ অব্যাহত থাকায় দেখা দিয়েছে পাহাড় ধসের আশংকাও। পাহাড়ের পাদদেশে ঝুঁকিপূর্ণ বসবাসকারীদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করা হয়েছে।

এদিকে জেলা শহরের ইসলাম পুর আর্মিপাড়া, শেরে বাংলা নগরসহ বেশ কিছু এলাকার বাড়িঘর পানির নিচে তলিয়ে গেছে। এ কারণে ক্ষতিগ্রস্তরা বিভিন্ন আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থান নিয়েছেন।

জেলা প্রশাসনের ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা সিমন সরকার জানান, বান্দরবানের বিভিন্ন পাহাড়ের পাদদেশে কয়েক হাজার মানুষের বসবাস। কয়েকদিন ধরে ভারী বৃষ্টিপাত শুরু হওয়ায় জেলার বিভিন্নস্থানে পাহাড় ধসের আশংকা রয়েছে।

তিনি আরও জানান, প্রশাসনের পক্ষ থেকে জনগণকে নিরাপদে সরে গিয়ে আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থানের অনুরোধ জানানো হচ্ছে। এরই মধ্যে জেলায় সর্বমোট ১৪০টি আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে। একই সঙ্গে প্লাবিত এলাকার মানুষজনকে আশ্রয় কেন্দ্রে নিয়ে আসা হচ্ছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.