বাংলাদেশ-চীন সম্পর্কের ক্ষেত্রে রাজনীতির চেয়ে ব্যবসার গুরুত্ব বেশি: বাণিজ্যমন্ত্রী

বাংলাদেশ ও চীন সম্পর্কের ক্ষেত্রে রাজনীতির চেয়ে ব্যবসার গুরুত্ব বেশি বলে মন্তব্য করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

তিনি বলেছেন, ব্যবসা ও উন্নয়ন কার্যক্রমের বিবেচনায় চীন বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অংশীদার। রফতানি পণ্যের কাঁচামাল, এক্সেসরিজসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে চীনের ওপর বাংলাদেশের নির্ভরতা রয়েছে। ফলে দুই দেশের সম্পর্কের ক্ষেত্রে রাজনীতির চেয়ে ব্যবসার গুরুত্ব বেশি।

রোববার বাংলাদেশ-চায়না চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (বিসিসিসিআই) ও ইকোনোমিক রিপোর্টার্স ফোরাম (ইআরএফ) আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

‘বাংলাদেশ-চীন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ওপর সেরা রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড’ বিতরণ উপলক্ষে রাজধানীর পল্টনে ইআরএফ কার্যালয়ে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে অনলাইনে যুক্ত থেকে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ঢাকায় নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত লি জিমিং।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ যত কাঁচামাল আমদানি করে তার বড় অংশ আসে চীন থেকে। এজন্য করোনা মহামারি শুরুর সময় সবাই দুশ্চিন্তায় পড়েছিলো যে কাঁচামাল সরবরাহের কি হবে। কাঁচামাল না পাওয়া গেলে সময়মত পণ্য রফতানি করা সম্ভব হবে না। বিশেষ করে তৈরি পোশাক শিল্প। এছাড়া এক্সেসরিজ খাতেও একই অবস্থা সৃষ্টি হয়। যদিও এক্সেসরিজে বাংলাদেশ অনেক এগিয়েছে। তারপরও চীনের ওপর নির্ভরশীলতা রয়েছে। এছাড়া দেশের মধ্যে যত বড় বড় নির্মাণ কার্যক্রম আছে, তার অনেক ক্ষেত্রেই চীনের অংশগ্রহণ আছে। ফলে দুই দেশের সম্পর্কের ক্ষেত্রে রাজনীতির চেয়ে ব্যবসার গুরুত্ব বেশি বলে তিনি উল্লেখ করেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.