বাংলাদেশিদের বড় সুখবর দিলো মালয়েশিয়া

প্রায় দুই বছর বন্ধ থাকার পর আবারও বাংলাদেশের জন্য শ্রমবাজারের দ্বার উন্মুক্ত করছে মালয়েশিয়া। চলতি মাসেই বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু করবে দেশটি। রোববার (৩ অক্টোবর) মালয়েশিয়ায় রাষ্ট্রীয় বার্তাসংস্থা বারনামাকে দেয়া এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানান দেশটির বাগান ও শিল্পপণ্য মন্ত্রী জুরাইদাহ কামারউদ্দিন।

তিনি বলেন, আমরা বাংলাদেশ ও ইন্দোনেশিয়া থেকে ৩২ হাজার শ্রমিক আনার প্রক্রিয়া এ মাসের মাঝামাঝিতে শুরু করব। যারা দুই ডোজ টিকা নিয়েছেন তাদের মালয়েশিয়ায় প্লান্টেশন খাতে নিয়োগ দেয়া হবে।

এছাড়া নিয়োগ জটিলতা এড়ানোর জন্য নিয়োগকর্তা প্রতিষ্ঠানগুলো খরচ বহন করতে রাজি হয়েছে বলেও জানান জুরাইদাহ।

তিনি আরও বলেন, এই ৩২ হাজার বিদেশি শ্রমিক নিয়োগের অনুমোদন দিয়েছে কোটাবারুতে অবস্থিত উদ্ভিদ-শিল্প ও পণ্য মন্ত্রণালয় ( কেপিপিকে )। আমাদের শ্রমিকরা এসব কাজ করতে আগ্রহী নন। তারা আরও ভালো চাকরি খোঁজেন। তাই এ খাতে কর্মী সংকটের সৃষ্টি হয়েছে। এতে উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে।

মালয়েশিয়া থেকে কর্মী নিয়োগের ঘোষণা এলেও বাংলাদেশের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালে মালয়েশিয়ার তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ সিন্ডিকেটের অভিযোগ তুলে বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নেয়া বন্ধ করে দিয়েছিল। মন্ত্রী জুরাইদাহ কামারউদ্দিন বিবৃতিতে নতুন আশার আলো দেখা যাচ্ছে বাংলাদেশের একসময়ের অন্যতম শ্রমবাজারে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.