‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৩

ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলায় সোমবার (১৯ জুলাই) ভোরে র‍্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুইজন নিহত হয়েছেন। একই সময়ে কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ করিম ওরফে কলিমুল্লাহ (৩২) নামে এক রোহিঙ্গা যুবক নিহত হয়েছেন।

র‍্যাব ১৪-এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবু নাঈম মো. তালাত বলেন, সোমবার ভোরবেলা ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের যশরা ইউনিয়নের বারইল গ্রামে ডাকাতির প্রস্তুতির খবর পেয়ে র‍্যাব অভিযান চালায়। র‍্যাবে উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি করে ডাকাতদল। র‍্যাব পাল্টা গুলি করলে পালিয়ে যায় ডাকাতদলের কয়েকেজন। পরে ঘটনাস্থলে আহত দুই ডাকাতকে পাওয়া যায়। তাদের গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ সময় তাদের কাছ থেকে ‘আগ্নেয়াস্ত্র ও ইয়াবা’ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান র‍্যাব কর্মকর্তা নাঈম। তবে কয়টি আগ্নেয়াস্ত্র ও ইয়াবা পাওয়া গেছে তা নির্দিষ্ট করে বলেননি তিনি।

নিহতরা ডাকাত বলে জানালেও র‍্যাব তাদের পরিচয় জানাতে পারেনি।

র‍্যাব ১৫-এর উপ-অধিনায়ক তানভীর হাসান বলেন, কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার কুতুপালংয়ের লম্বাশিয়া ক্যাম্পে রোহিঙ্গা ডাকাত গ্রুপের অবস্থানের খবর পেয়ে সেখানে অভিযানে যায় র‍্যাব। এ সময় র‍্যাবের অবস্থান টের পেয়ে গুলি করে তারা। আত্মরক্ষার্থে র‍্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। পরে ওই স্থান তল্লাশি করে কলিমুল্লাহর মরদেহ পাওয়া যায়। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

র‍্যাবের দাবি, নিহত রোহিঙ্গা করিম ওরফে কলিমুল্লাহ ডাকাত গ্রুপের প্রধান। তিনি উল্লাহ লম্বাশিয়া ক্যাম্পের নির আহমেদের ছেলে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে দুটি অস্ত্র ও চার রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.