ফেরিতে যাত্রী ও প্রাইভেটকার পারাপার থেমে নেই

বন্ধ ঘোষণা করেও ফেরিতে যাত্রী ও প্রাইভেটকার পারাপার থামাতে পারছে না বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্পোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি)। সড়ক, পুলিশের চেকপোস্ট ও ঘাটে কঠোর বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে।

শনিবার সরেজমিনে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে দেখা যায়, ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষ বাড়ি ফিরতে ঘাটে আসছে। নির্দেশনা উপেক্ষা করে ফেরিতে নদী পার হচ্ছে। ঘাটেও ফেরি পারের অপেক্ষায় যাত্রীবাহী গাড়ি।

বিআইডব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) ফয়সাল আহমেদ বলেন, শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে বর্তমানে ১০টি ফেরি চালু আছে। যাত্রীবাহী গাড়ি ও যাত্রী পারাপারে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। তবে ঢাকা থেকে সড়ক পথে পুলিশের চেকপোস্ট উপেক্ষা করে যাত্রীরা ঘাটে আসছে। তাদের ফেরিতে ওঠা থামানো যাচ্ছে না। তাই এখন যেসব যাত্রী ঘাটে আসছে তাদের স্বাস্থ্যবিধি মানার জন্য উৎসাহিত করা হচ্ছে। ঘাটে দুই শতাধিক পণ্যবাহী গাড়ি পারাপারের অপেক্ষায় অবস্থান করছে।

এর আগে। শুক্রবার বিআইডব্লিউটিসির এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ৯ জুলাই থেকে ফেরিতে যাত্রীবাহী সব ধরনের গাড়ি ও যাত্রী পরিবহন বন্ধ থাকবে। এ সময় কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুধু জরুরি পণ্যবাহী গাড়ি ও অ্যাম্বুলেন্স পারাপার করা যাবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.