পিইসি-ইবতেদায়ির মূল্যায়ন হবে বার্ষিক পরীক্ষায়

চলতি বছরের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী (ইইসি) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে না। শিক্ষার্থীদের স্ব স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে মূল্যায়ন করে তাদের পরবর্তী শ্রেণিতে উন্নীত করা হবে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল আলম গণমাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, কেন্দ্রীয়ভাবে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত না হওয়ায় বার্ষিক পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করে পরবর্তী শ্রেণিতে উন্নীত করার একটি প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রী বরাবর পাঠিয়েছিল প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর। তিনি এতে সম্মতি দিয়েছেন।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক আরো বলেন, বর্তমানে করোনা সংক্রমণের হার নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আশা করছি এ অবস্থা থাকলে স্ব স্ব বিদ্যালয়ে বার্ষিক পরীক্ষা নেয়ার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা পরবর্তী শ্রেণিতে উত্তীর্ণ করা হবে।

আর যদি করোনার সংক্রমণ বেড়ে যায় তাহলে পরীক্ষা না নিয়ে বিকল্প মূল্যায়নের মাধ্যমে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ফলাফল দেবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

এদিকে একই কথা জানিয়েছেন মাদরাসা শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক কে. এম. রুহুল আমীন। তিনি বলেন, পরিস্থিতি অনুকূলে থাকলে চলতি বছরের ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী (ইইসি) পরীক্ষার পরিবর্তে স্ব স্ব মাদরাসায় বার্ষিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানা যায়, প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো প্রস্তাবে বলা হয়েছিল করোনাভাইরাস পরিস্থিতি ও শ্রেণিকক্ষে শিখন-শেখানো কার্যক্রম বিবেচনাক্রমে ২০২১ শিক্ষাবর্ষের প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা নেয়ার পরিবর্তে স্ব স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে মূল্যায়ন করে তাদের পরবর্তী শ্রেণিতে উন্নীত করা যেতে পারে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.