পানিতে থৈ থৈ চট্টগ্রামের মা ও শিশু হাসপাতাল

রাতভর টানা বৃষ্টিতে ডুবে গেছে চট্টগ্রাম নগরের আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতাল। এতে যেমনি ব্যাহত হচ্ছে চিকিৎসা সেবা, তেমনি ভোগান্তিতে পড়েছেন চিকিৎসক, রোগী ও তাদের স্বজনরা।

বৃহস্পতিবার সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, হাসপাতালের প্রধান ফটকের সামনের রাস্তাটি ডুবে আছে হাঁটু পানিতে। শুধু তাই নয়, হাসপাতালের নিচতলার কক্ষগুলোও পানিতে টুইটম্বুর। সেই পানির মধ্য দিয়ে যাতায়াত করছেন হাসপাতালে আগতরা।

জানা গেছে, হাসপাতালটিতে প্রতিদিন গড়ে সাড়ে তিনশ’ রোগী ভর্তি থাকার পাশাপাশি আউটডোর ও ইনডোরে চিকিৎসা সেবা নিতে আসেন অন্তত দেড় হাজার রোগী। এর মধ্যে বেশিরভাগই প্রসূতি মা ও নবজাতক।

হাসপাতালের ভেতরের পরিস্থিতি

হাসপাতালের ভেতরের পরিস্থিতি

হাসপাতালে আসা এক রোগীর স্বজন বলেন, হাসপাতালের নিচতলা থেকে প্রধান ফটক পর্যন্ত পানিতে ডুবে রয়েছে। ফলে ট্রলি ব্যবহার করা যাচ্ছে না। এ অবস্থায় কোলে করেই রোগী আনা-নেয়া করতে হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, প্রতি বছর বর্ষা এলেই আমরা হাসপাতালটির এ চিত্র দেখতে পাই। কিন্তু এর কোনো সুরাহা হয় না। আদৌ কি হবে কিনা তাও জানি না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. এ কে এম আশরাফুল করিম বলেন, ভারী বৃষ্টিতে আগ্রাবাদ এলাকা ডুবে যাওয়া এটি দীর্ঘদিনের সমস্যা। তবুও আমরা সবসময় চেষ্টা করি সবটুকু কাটিয়ে সর্বোচ্চ সেবাটুকু দিতে। এ অবস্থায় রোগীদের ভোগান্তি যাতে না হয় আমরা সেই বিষয়টি লক্ষ্য রাখছি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.