পরীমনির ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ‘ফ্রিজ’

গ্রেপ্তারকৃত ঢাকাই সিনেমার চিত্রনায়িকা পরীমনির দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তার একটি ব্যাংকের সব অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

জানা যায়, চলচ্চিত্রে অভিনয়ের আড়ালে অনৈতিক ব্যবসা করতেন তিনি। মাদক গ্রহণসহ অপরাধ জগতে জড়িত এই নায়িকা। জিজ্ঞাসাবাদে পরীমনির প্রায় সাড়ে তিন কোটি টাকার রয়েল ব্লু রঙের মাসেরাতি বিলাসবহুল গাড়ির বিষয় সামনে আসে।

সূত্র জানায়, পরীমনি বলেছেন, গাড়িটি ব্যাংক লোন বা ক্যাশ টাকা দিয়ে ক্রয় করেননি। একটি বেসরকারি ব্যাংকের চেয়ারম্যানের সংগে তার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে।

ওই সম্পর্কের কারণে তার কাছ থেকে গাড়িটি উপহার পেয়েছেন তিনি। ওই ব্যাংকের চেয়ারম্যানের তথ্যও পেয়েছেন গোয়েন্দারা।

পরীমনির সঙ্গে সম্পর্ক থাকা ওই ব্যাংক চেয়ারম্যানের বিষয়ে খোঁজ-খবর নিচ্ছেন আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। তিনিও নজরদারিতে রয়েছেন। এছাড়া ওই ব্যাংকে পরীমনির বেশ কয়েকটি অ্যাকাউন্ট রয়েছে। সেগুলো ইতিমধ্যে ফ্রিজ করা হয়েছে বলেও জানা গেছে।

গত ৪ আগস্ট বিকেল পৌনে ৫টার দিকে পরীমনির বাসায় অভিযান শুরু করে র‍্যাব। তার আগে ফেসবুকে লাইভে এসে পরীমনি অভিযোগ করেন, কে বা কারা তার বাসার দরজায় ধাক্কাধাক্কি করছে।

পরে র‍্যাব অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ সন্ধ্যায় তাকে আটক করে র‍্যাবের প্রধান কার্যালয়ে নেয়া হয়। রাতভর জিজ্ঞাসাবাদ করে বৃহস্পতিবার তার বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দিয়ে বনানী থানায় হস্তান্তর করা হয়।

বৃহস্পতিবার রাতেই তাকে আদালতে তুলে সাত দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ। পরে শুনানি শেষ তাকে জ্ঞিাসাবাদের জন্য চার দিনের রিমান্ড আদেশ দেয় আদালত।

Leave A Reply

Your email address will not be published.