নোয়াখালীতে চাচিকে ধর্ষণ-ভিডিও ধারণ: যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার

নোয়াখালীর চাটখিলে বসতঘরে ঢুকে জোরপূর্বক চাচিকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে। এ ঘটনার পর মজিবুল রহমান শরীফ (৩২) নামের ওই যুবলীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সে উপজেলার নোয়াখলা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ওয়াতির বাড়ির রফিকুল ইসলাম খোকন’র ছেলে এবং নোয়াখলা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি।

বুধবার (২১ অক্টোবর) এ ঘটনায় ভুক্তভোগী গৃহবধূ (২৯) অভিযুক্ত শরীফের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে চাটখিল থানায় মামলা দায়ের করেন। অপরদিকে, নির্যাতিতা গৃহবধূকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে পুলিশ। থানা সূত্রে জানা যায়, আটক শরীফের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলাসহ ৮ মামলার রয়েছে।

মামলা ও ভুক্তভোগীর অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত শরীফ তার দূর সম্পর্কের ভাসুরের ছেলে। বুধবার (২১ অক্টোবর) ভোর ৫ টার দিকে ওই গৃহবধূ তার নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। শরীফ সুকৌশলে গৃহবধূর টিনশেড ঘরে প্রবেশ করে জোরপূর্বক ওই গৃহবধূকে ধর্ষণ করে এবং নগ্ন করে ছবি-ভিডিও ধারণ করে চলে যায়।

চাটখিল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) দুলাল মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় নারীও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ভুক্তভোগী গৃহবধূ বাদী হয়ে চাটখিল থানায় মামলা করেছে। মামলার আলোকে তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে তাকে দুপুর ৩টার দিকে নোয়াখলা ইউনিয়নের ইয়াছিন বাজার থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি আরো বলেন, গৃহবধূ মামলায় উল্লেখ করেছেন ধর্ষণের সাথে ফোনে তার নগ্ন ছবি ও ভিডিও ধারণ করে শরীফ। শরীফকে আটক করলেও ওই ফোন এখনো উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। পুলিশ ফোনটি উদ্ধারে তাকে নিয়ে অভিযান পরিচালনা করবে। তদন্ত দুলাল মিয়া বলেন, আগামীকাল তাকে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হবে।

আরও পড়ুন
Loading...