নির্বাচনি সহিংসতায় ছুরিকাঘাতে আহত শ্রমিকলীগ নেতার মৃত্যু

মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার মাদবরেরচর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে আহত শ্রমিকলীগনেতা আবু বকর (৪২) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। মাদবরেরচর ইউনিয়ন শ্রমিকলীগের সভাপতি গতকাল মঙ্গলবার রাত ১১টায় ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, মাদবরেরচর ইউপি নির্বাচনের আগের দিন গত রোববার রাতে ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী ইউসুফ সরদারের সমর্থকেরা সাড়ে সতের রশি এলাকায় প্রচারে যায়। তখন সেখানে প্রতিপক্ষ সদস্য প্রার্থী আজিজুল সরদারের লোকজন ইউসুফ সরদারের সমর্থকদের বাধা দেয়।

এ সময় দুপক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে ইউসুফ সরদারের সমর্থকরা আবু বকরকে ছুরিকাঘাত করলে তিনি গুরুতর আহত হন। আবু বকরকে প্রথমে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাঁর অবস্থার অবনতি হলে ঢাকার আজগর আলী হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানেই তিনি মঙ্গলবার রাতে মারা যান।

আবু বকর নির্বাচনে বিজয়ী আজিজুল সরদারের সমর্থক ছিলেন বলে জানা গেছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিরাজ হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার জন্য ব্যাপক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.