নলছিটি পৌরসভায় ৪ লাখ টাকার চেক জালিয়াতির ঘটনায় ৩ জনকে আসামী করে মামলা

নলছিটি পৌরসভায় ৪ লাখ টাকার চেক জালিয়াতি করে টাকা উত্তোলনের চেষ্টা করার অভিযোগে পৌরসভার ক্যাশিয়ার রেখা বেগম ও তাঁর স্বামী ইলেকট্রিশিয়ান সিরাজুল ইসলাম লিজন (টুলু) ও এবিএম জাহিদুল ইসলামকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন পৌর মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল ওয়াহেদ খান।
জানা গেছে পৌরসভার মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল ওয়াহেদ খান ও সচিব আবুহেনা মোহম্মদ রাশেদ ইকবাল’র স্বাক্ষর জাল করে ৪ লক্ষ টাকার একটি চেক নলছিটি সোনালী ব্যাংকে জমা করে পৌরসভার ইলেকট্রিশিয়ান সিরাজুল ইসলাম লিজন। টাকা উত্তোলনের জন্য চেকটি ব্যাংকে জমা দেওয়ার পর চেকের স্বাক্ষর দেখে ব্যাংকের ম্যানেজারের সন্দেহ হয়। তিনি দুপুর আড়াইটার দিকে পৌরসভার মেয়রকে ফোন করে চেকের বিষয়টি জানতে চান। তখন মেয়র জানান এই চেকে তিনি স্বাক্ষর করেননি। পরে পরে মেয়র পৌরসভার ক্যাশিয়ার রেখা বেগমকে পৌরসভার ডেকে এনে চেকের পাতাগুলো উদ্ধার করেন। এবং পুলিশকে খবর দেন। সন্ধ্যার পর ক্যাশিয়ার রেখা বেগম ও তার স্বামী পৌরসভার ইলেকট্রিশিয়ান সিরাজুল ইসলাম লিজনকে (টুলু) পুলিশের হাতে তুলে দেন।
এ বিষয়ে পৌরসভার মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল ওয়াহেদ খান জানান কাউন্সিলরদের নিয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। চেক জালিয়াতির ঘটনায় পৌরসভার মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল ওয়াহেদ খান বাদি হয়ে ৩ জনকে আসামি করে রাতেই মামলা দায়ের করেন।
এ ব্যাপারে নলছিটি থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত মাহমুদ হাসান প্রিন্স জানান পৌরসভার মেয়র বাদি হয়ে ৩ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। মামলার দুই আসামিকে আটক করা হয়েছে,বাকি জনকেও আটকের চেষ্টা চলছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.