ধাক্কা লাগা পদ্মা সেতুর পিলার দেখতে যাচ্ছে তদন্ত কমিটি

পদ্মা সেতুর পিলারের রো রো ফেরির ধাক্কার ঘটনা নিখুঁতভাবে খতিয়ে দেখতে এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে মাঠে নেমেছে তদন্ত কমিটি। গঠন করা ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌ রুটের শিমুলিয়ায় আজই যাচ্ছেন বলে জানা গেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিআইডব্লিউটিসি’র শিমুলিয়া ম্যানেজার মোঃ ফয়সাল।

মাদারীপুরের শিবচর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মিরাজ জানান, সংশ্লিষ্ট ঘটনায় গতকাল রাতে পদ্মা সেতুর প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আব্দুল কাদের শিবচর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। জিডিতে ওই ফেরির চালকের লাইসেন্স ও দক্ষতাসহ ঘটনার তদন্তের বিষয়টি উল্লেখ করেছেন তিনি। এরপরই ঘটনা তদন্তে নেমেছে শিবচর থানা পুলিশ।

এদিকে বিআইডব্লিউটিসি’র শিমুলিয়া ম্যানেজার মোঃ ফয়সাল আরও জানান, লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে আজ সকাল থেকে শিমুলিয়া ঘাটে যানবাহন ও যাত্রী চাপ নেই। বাংলাবাজার ঘাটে শতাধিক যানবাহন রয়েছে এবং কিছু যাত্রী ঢাকার দিকে আসছে। সকাল থেকে এ রুটে সীমিত আকারে ৭ টি ফেরি চলছে।

প্রসঙ্গত, গতকাল (২৩ জুলাই) সকাল ১০ টার দিকে বাংলাবাজার ঘাট থেকে যানবাহন ও যাত্রী নিয়ে ছেড়ে আসা রো রো ফেরি শাহ জালাল নৌপথের পদ্মা সেতুর ১৭ নম্বর পিলারের সামনে আসলে স্রোতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সেতুর ১৭ নম্বর পিলারে সাথে ধাক্কা লাগে। এতে ফেরির র‍্যামসহ সামনের অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এসময় ফেরিতে দাঁড়ানো ও বসা অবস্থায় থাকা যাত্রীরা ফেরির মধ্যেই পড়ে যায়। এতে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। ঘটনার পরপরই ওই ফেরি চালক আব্দুর রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

অন্যদিকে, এঘটনায় ৪ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি)।

জানা গেছে, বিআইডব্লিউটিসির পরিচালক (বাণিজ্যিক) এস এম আশিকুজ্জামানকে তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে। কমিটির অন্য ৩ সদস্যের মধ্যে রয়েছেন এজিএম (ইঞ্জিনিয়ারিং) রুবেলুজ্জামান। তদন্ত কমিটিকে ৩ কার্যদিবসের মধ্যে সংস্থাটির চেয়ারম্যানের বরাবর প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

এর আগে গত ২০ জুলাই রো রো ফেরি শাহ মাখদুম সেতুর ১৬ নম্বর পিলারের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এছাড়াও এই পিলার দুটিতে গত ২ জুলাই এবং ১৬ জুলাই অন্যান্য ফেরির সঙ্গে আরও দুই বার ধাক্কা লাগে বলেও জানিয়েছেন সেতুর প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আব্দুল কাদের।

Leave A Reply

Your email address will not be published.