দেশে আমদানি হচ্ছে পাঁচ লাখ টন গম

পৃথক ক্রয় ব্যবস্থার মাধ্যমে রাশিয়া থেকে পাঁচ লাখ মেট্রিক টন গম আমদানির অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে জি-টু-জি ভিত্তিতে সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে দুই লাখ মেট্রিক টন ও আন্তর্জাতিক উন্মুক্ত দরপত্রের মাধ্যমে তিন লাখ মেট্রিক টন গম আমদানি হবে। শনিবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় গম ক্রয় প্রস্তাবটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

দরপত্র দাখিলের সময়সীমা পত্রিকায় বিজ্ঞাপন প্রকাশের তারিখ থেকে ৪২ দিনের পরিবর্তে ১৫ দিন নির্ধারণের নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। গম আমদানিসহ ১ হাজার ৬০৫ কোটি ব্যয়ে ১৬টি প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। ভার্চুয়াল সভায় অংশ নেন কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

সভা শেষে অর্থমন্ত্রী ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব অনুমোদিত প্রকল্পগুলোর বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির অনুমোদনের জন্য একটি এবং ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির অনুমোদনের জন্য ১৫টি প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়।

প্রস্তাবনাগুলোর মধ্যে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের ছয়টি, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের চারটি, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের দুটি, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের একটি, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের একটি এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের একটি প্রস্তাবনা ছিল।

মোট অর্থায়নের মধ্যে জিওবি থেকে ১ হাজার ৫৫১ কোটি ৮৮ লাখ ৯৩ হাজার ৯৩২ টাকা এবং বিশ্বব্যাংক থেকে ঋণ ৫৩ কোটি ৬২ লাখ ৯৪ হাজার ৫৩৮ টাকা ব্যয় হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.