দুর্নীতির দায়ে অস্ট্রিয়ার চ্যান্সেলরের পদত্যাগ

দুর্নীতির অভিযোগ এবং তদন্ত চলাকালীন পদত্যাগ করলেন অস্ট্রিয়ার চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ। স্থানীয় সময় শনিবার পদত্যাগ করেন তিনি। যদিও তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেন এই নেতা।

২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে দেশটির চ্যন্সেলরের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন সেবাস্তিয়ান কুর্জ। এর আগে, ২০১৭ সালে রক্ষণশীল ওভিপি পিপলস পার্টির চেয়ারম্যান হন এবং সে বছরের শেষ দিকে নির্বাচনে জয়ী হয়ে বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সরকার প্রধান হন তিনি।

সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, সরকারি অর্থ দলীয় রাজনৈতিক কাজে ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছিল কুর্জের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় তিনিসহ মোট ১০ জনের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে।

গত বুধবার অস্ট্রিয়ার ইকোনমিক অ্যাফেয়ার্স অ্যান্ড করাপশন বিষয়ক প্রসিকিউটর কার্যালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, সেবাস্তিয়ান কুর্জসহ ১০ জন এবং ৩টি সংস্থার বিরুদ্ধে ‘বিশ্বাস ভঙ্গ, দুর্নীতি, ঘুষের’ সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকার অভিযোগে তদন্ত চলছে।

প্রসিকিউটররা ইতোমধ্যে চ্যান্সেলরি, অর্থ মন্ত্রণালয় এবং চ্যান্সেলরের সিনিয়র সহকারীদের বাড়ি ও অফিসে অভিযান চালায়। তবে, কুর্জ তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে এগুলোকে ‘ভিত্তিহীন’ বলে দাবি করেছেন। তবে পদত্যাগের পর তিনি চ্যান্সেলর হিসেবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলেকজান্ডার শ্যালেনবার্গের নাম প্রস্তাব করেছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.