তিস্তার পানি বিপৎসীমার নিচে, দুর্ভোগে বানভাসিরা

উজানের ঢল ও ভারতের গজলডোবা ব্যারেজের সবগুলো গেট খুলে দেওয়ায় লালমনিরহাটের তিস্তা নদীর পানি বিপৎসীমা অতিক্রম করে ভয়াবহ পরিস্থিতি বিরাজ করছে। তবে শুক্রবার (২২ অক্টোবর) সকাল ৬টায় পানি আরও কমে গিয়ে বিপৎসীমার ৫৮ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হলেও এখনো নদী তীরবর্তী প্রায় শতাধিক চরের অন্তত প্রায় ১ লাখ মানুষ পানিবন্দী অবস্থায় রয়েছে। এ বন্যার কারণে পানিবন্দী মানুষজন চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। চরগুলোর সঙ্গে জেলা ও উপজেলা সদরের যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে।

তিস্তা ব্যারেজ (ডালিয়া) কন্ট্রোল রুম ইনচার্জ নুরুল ইসলাম আরটিভি নিউজকে জানান, শুক্রবার (২২ অক্টোবর) সকাল ৬টায় তিস্তার পানি আরও কমে গিয়ে ডালিয়া পয়েন্টে বিপৎসীমার ৫৮ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পানি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ব্যারেজের সবগুলো গেট ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক মো. আবু জাফর জানান, বন্যা কবলিত মানুষের জন্য ৭০ মে.টন জিআরের চাল ও নগদ ৫ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। আরও ত্রাণ চেয়ে মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.