তমা মির্জার মধুচন্দ্রিমায় কাটছে ‘মধুর’ সময়

আলহামদুলিল্লাহ, আমাদের মধুচন্দ্রিমা আমাদের সুদীর্ঘ জীবন উজ্জ্বল করবে, চলি এই বিবাহকে আমাদের জীবনে সেরা অভিযান করতে।’ সংযুক্ত আরব আমিরাতে মধুচন্দ্রিমা উদযাপনে গিয়ে স্বামী হিশাম চিশতির সঙ্গে সঙ্গে কয়েকটি ঘনিষ্ঠ ছবি পোস্ট করে এমনটাই লিখলেন বাংলাদেশি অভিনেত্রী তমা মির্জা।

এই মুহূর্তে আরবীয় এই দেশটির ব্যয়বহুল শহর দুবাই রয়েছেন তমা মির্জা। মধুচন্দ্রিমার সময়টুকু যে মধুময় হয়ে উঠেছে তা তমার সোশ্যাল অভিব্যক্তিতেই ফুটে উঠেছে। কেননা ফেসবুক হ্যান্ডেলে মধুচন্দ্রিমাকালীন দৈনন্দিন ছবি এক্টিভিটি প্রকাশ বকরছেন তাতে সহজেই অনুময় আনন্দময় মধুর সময়ই কাটছে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই অভিনেত্রীর।

দুবাই শহরের বিভিন্নপ্রান্তে ঘুরে বেড়াচ্ছেন এই যুগল, আনন্দময় সময় কাটানোর পাশাপাশি শপিংমলগুলোও ঘুরে দেখছেন, করছেন কেনাকাটা। হাপিয়ে উঠলের জিরিয়ে নিচ্ছেন চা কিংবা কফি ব্রেকে।

২০১৯ সালের মার্চে একদম চুপিসারেই বিয়ে সারেন অভিনেত্রী তমা মির্জা। বর কানাডার টরেন্টোতে বসবাসকারী হিশাম চিশতি। তিনি সেখানের ব্যবসা ও রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। রাজধানীর গুলশান এলাকার একটি কনভেনশন সেন্টারে একদম পারিবারিক আয়োজনে বিয়ে সম্পন্ন হলে তমা বলেছিলেন গত বছরের নভেম্বরেই বিয়ে পরবর্তী অনুষ্ঠান করবেন। সে অনুষ্ঠান না হলেও চলতি বছরের অক্টোবরে হানিমুন সেরে নিচ্ছেন তারা।

তমা মির্জা ২০১৫ সালে ‘নদীজন’ সিনেমায় শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন তিনি। ২০০৯ সালে শাহীন-সুমন পরিচালিত ‘মনে বড় কষ্ট’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় তমা মির্জার।

আরও পড়ুন
Loading...