ডিজিটাল মুদ্রার পরীক্ষা চালালো ই’সরায়েল, আসছে শিগগিরই

নিজেদের উদ্ভাবিত ডিজিটাল মুদ্রার পাইলট পরীক্ষা সম্পন্ন করেছে ইসরায়েল। দেশটির মুদ্রা শেকেলের ডিজিটাল ক্রিপ্টোকারেন্সি তৈরি করে এই পরীক্ষা চালানো হয়েছে। সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানিয়েছেন ব্যাংক অব ইসরায়েলের ডেপুটি গভর্নর অ্যান্ড্রু আবির। খবর রাশিয়া টুডের।

তবে খুব শিগগিরই এই মুদ্রা চালুর পরীক্ষা নেই বলে জানিয়েছেন তিনি। এর আগে অবশ্য আবির বলেছিলেন যে, আগামী ৫ বছরের মধ্যে তারা এই মুদ্রা চালু করতে পারে। তবে সে ক্ষেত্রেও সম্ভাবনা মাত্র ২০ শতাংশ। তিনি বলেন, অন্যান্য দেশও এই মুদ্রা প্রচলনের দিক আগাচ্ছে। সেক্ষেত্রে এই মুদ্রা চালুর ব্যাপারে আমার মনে হয় অনেকটাই অগ্রগতি হয়েছে। তবে এরপরও এটা চালুর সম্ভাবনা এখনও ৫০ শতাংশের কম।

এর আগে ব্যাংক অব ইসরায়েল জানিয়েছিল, তারা সেন্ট্রাল ব্যাংক ডিজিটাল কারেন্সিস (সিবিডিসিএস) তৈরির গবেষণা ত্বরান্বিত করেছে। এর এক মাস পরই এমন মন্তব্য করলেন আবির। তবে ইসরায়েল যদি সিবিডিসি মুদ্রার প্রচলনও করে তারপরও দেশটির প্রচলিত ব্যাংকিং সেক্টর ধ্বংস হবে বলে জানান আবির। তিনি বলেন, আমি দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি যে এর ফলে ব্যাংকগুলো হারিয়ে যাবে না।

আবির বলেন, কোনও কেন্দ্রীয় ব্যাংক এমন কোনও উদ্দেশ্য নিয়ে ডিজিটাল মুদ্রা চালু করবে না। লেনদেনের পুরো ব্যবস্থায় ব্যাংক তারপরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। ক্রেমলিন থেকে শুরু করে ব্যাংক অব জাপানসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদের জন্য সিবিডিসি তৈরির চেষ্টা করছে। এ ধরনের মুদ্রা বিটকয়েনের মতো ক্রিপ্টোকারেন্সির চেয়ে ভিন্ন হবে। কারণ সিবিডিসি সেন্ট্রালাইজড হবে এবং একটি দেশের আর্থিক কর্তৃপক্ষ এটা নিয়ন্ত্রণ করবে।

উল্লেখ্য, কোনও দেশই আনুষ্ঠানিকভাবে ডিজিটাল মুদ্রা চালু করেনি। কিন্তু এর জন্য জোর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বিভিন্ন দেশ। তাই আগামী কয়েক বছরের মধ্যেই এমন মুদ্রা ব্যবস্থা চালু হতে পারে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.