ডিজিটাল ডিভাইস হবে সবচেয়ে বড় রপ্তানি পণ্য: প্রধানমন্ত্রী

ডিজিটাল ডিভাইস সবচেয়ে বড় রপ্তানি পণ্য হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকারের ধারাবাহিকতায় পরিকল্পিত উন্নয়ন সম্ভব হচ্ছে। ডিজিটাল ডিভাইস হবে সবচেয়ে বড় রপ্তানি পণ্য। পাট ও পাটজাত পণ্যও আমরা রপ্তানি করতে পারি। আমাদের দেশে বিনিয়োগ হবে, তেমনি আমরাও বিদেশে বিনিয়োগ করতে পারবো। সে ক্ষেত্রে আমাদের মন্ত্রণালয়কে আরও বিশেষ উদ্যোগী হতে হবে।

তিনি বলেন, অনেকের সন্দেহ থাকতে পারে উন্নয়নশীল দেশ হলে বোধ হয় অনেক সুবিধা থেকে বঞ্চিত হব। আসলে যেসব সুবিধা থেকে বঞ্চিত হব তার চেয়ে বেশি সুবিধা আমরা পাবো। আমাদের বাণিজ্য বাড়বে, রপ্তানি বাড়বে, রপ্তানি সুবিধা পাবো।

তিনি আরও বলেন, দেশে উৎপাদিত পণ্যের বহুমুখীকরণ ও রপ্তানি বাড়াতে পদক্ষেপ নিতে হবে। আমাদের রপ্তানি শিল্পের সংখ্যাও বেড়েছে। ভবিষ্যতে আরও বাড়াতে হবে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা পোশাক শিল্পে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছি। কারণ এখানে আমাদের অনেক নারী শ্রমিক কাজ করে। এর পাশাপাশি আমরা আমাদের অন্যান্য শিল্পেও সমাভাবে গুরুত্ব দিয়েছি। ১০০ টি শিল্প অঞ্চল যেটা আমরা তৈরি করছি। সেখানে দেশি-বিদেশি সবাই বিনিয়োগ করতে পারবে সেই সুযোগ আমরা করে দিচ্ছি।করোনাকালীন সময়ে সবই স্থবির হয়ে গেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সীমিত উপায়ে ডিজিটাল মেলার আয়োজন হলেও বাণিজ্য মেলা আমরা করতে পারিনি। রপ্তানি মেলার জন্য একটা জায়গা দেওয়ার সিদ্ধান্ত দিয়েছি। করোনা কমে যাওয়ায় ২০২২ সালের ২৬তম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা রাজধানীর পূর্বাচলে স্থাপিত বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে আয়োজনের অনুমোদন দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.