জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ডের জন্য আবেদনের সময় বাড়লো

জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ডের জন্য আবেদনের সময়সীমা বাড়িয়ে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত করা হয়েছে। এক বিজ্ঞপ্তিতে সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) জানায়, ২৪ অক্টোবর আবেদনের শেষ সময়সীমা বেঁধে দিলেও তরুণদের আগ্রহের কারণে এবং সার্বিক অবস্থা বিবেচনা করে সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে।

দেশকে ভালোবেসে নিজ সমাজের উন্নয়নে কাজ করে যাওয়া তরুণ সংগঠকদের পুরস্কৃত করতে সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই)-এর অঙ্গসংস্থা ইয়াং বাংলা ২০১৪ সাল থেকে প্রদান করছে ‘জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড।’ তরুণদের দেশ গঠনে উদ্বুদ্ধ করতে আয়োজিত পঞ্চমবারের মতো ফিরে এসেছে জয় বাংলা ইয়ুথ আ্যাওয়ার্ড (জেবিওয়াইএ)।

সিআরআই জানিয়েছে, এ পুরস্কারের জন্য ২৪ সেপ্টেম্বর শুরু হওয়া অনলাইনে নিবন্ধন চলবে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত। ইয়াং বাংলার ওয়েবসাইটে (http://jbya.youngbangla.org) পুরস্কারের জন্য আবেদনের করা যাবে। সেখানেই মিলবে বিস্তারিত তথ্য। জমা পড়া আবেদনগুলো ৩১ অক্টোবরের পর বাছাই করা হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, দেশের প্রতি তরুণদের দায়বদ্ধতা ও দায়িত্ব পালনে নেওয়া উদ্যোগগুলোকে স্বাগত জানাতে পঞ্চমবারের মতো ফিরে এসেছে ‘জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড।’ চলতি বছরের অক্টোবরে তরুণদের সর্ববৃহৎ প্ল্যাটফর্ম ইয়াং বাংলার আয়োজনে এবারও পুরস্কৃত করা হবে দেশ গঠনে এগিয়ে যাওয়া তরুণ সংগঠনগুলোকে। ২০১৪ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকেই নিজ নিজ এলাকায় সফল হওয়া যুবক ও যুব সংগঠনগুলোকে পুরস্কৃত করে আসছে ইয়াং বাংলা।

চলতি বছর থেকে এই আ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান ও আজীবন সম্মাননা পুরষ্কারের নতুন দুটি আ্যাওয়ার্ড চালু করা হবে। উন্নয়ন কর্মসূচি ও প্রকল্প, জননীতিতে গবেষণা ও উদ্ভাবন, উদ্যোক্তা ও সৃজনশীলতা- এই চার নীতিতে আজীবন সম্মাননা দেওয়া হবে। এ ছাড়া নেতৃত্বগুণ, সেবার মানসিকতা ও উদ্যোগ এবং গবেষণার মধ্য দিয়ে স্বাধীনতাত্তোর দেশ গঠনে ভূমিকা রাখা ব্যক্তিদেন আজীবন সম্মাননা দেওয়া হবে। এতে সামাজিক উদ্যোগ ও গোষ্ঠীভিত্তিক উন্নয়নে দুইটি বিভাগে ১০টি পুরষ্কার দেওয়া হবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সীদের সংগঠন বা সংগঠকরা এখানে আবাদেন করতে পারবেন। যে সংগঠন দেশে ধর্মীয় ও জাতিগত সংখ্যালঘু, হিজরা, দলিত ও অনগ্রসর সমাজকে নিয়ে কাজ করে এবং নারীর ক্ষমতায়ন, শিশু অধিকার, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের ক্ষমতায়ন, পিছিয়ে পড়া মানুষের ক্ষমতায়ন, যুব উন্নয়ন, অতি দরিদ্র মানুষের ক্ষমতায়নে ভূমিকা রেখেছে, তারা ‘জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড’-এর জন্য আবেদন করতে পারবেন। এ ছাড়া যেসব যুব সংগঠন তাদের কার্যক্রমের মধ্যে দিয়ে কোনো গোষ্ঠী বা এলাকার উন্নতির জন্য কাজ করছে, ‘ইন্টিগ্রেটেড কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট’-এর অধীনে তারাও আবেদন করতে পারবেন।

এতে ছয়টি বিষয়ে আবেদনের সুযোগ রাখা হয়েছে, মাদকবিরোধী সচেতনতা অভিযান, পরিবেশ রক্ষা এবং জলবায়ু পরিবর্তন রোধে কার্যক্রম , দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস এবং জরুরি প্রতিক্রিয়া, স্বাস্থ্যসেবা ও সচেতনতা, শিক্ষা, সামাজিক-সাংস্কৃতিক উদ্যোগ। চলতি বছর এ ক্ষেত্রে নতুন করে যুক্ত করা হয় ধর্মীয় ও জাতিগত সংখ্যালঘু, হিজরা, দলিত ও অনগ্রসর সমাজকে নিয়ে কাজ করার বিষয়টি।

বিশ্ববিদ্যালয়ভিত্তিক যেসব ক্লাব কমিউনিটি সার্ভিস, ক্যাম্পেইন এবং কার্যক্রমের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে তরুণ সমাজের জন্য কাজ করছে, তাদেরকে এই পুরষ্কারের জন্য আবেদনের আহ্বান জানিয়েছে ইয়াং বাংলা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.