চিকিৎসার অব্যবস্থাপনায় দুজন কাছের মানুষকে হারালাম : মীরা চোপড়া

গত ১০ দিনে পরিবারের দুজন সদস্যকে হারিয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী মীরা চোপড়া, যিনি বিশ্বতারকা প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার তুতো বোন। মীরা চোপড়া এই পরিস্থিতি মেনে নিতে পারছেন না। তিনি দুঃখিত, হতাশ ও রাগান্বিত। হিন্দুস্তান টাইমসের খবর, মীরা চোপড়ার অভিযোগ, করোনাভাইরাস নয়, ভারতের স্বাস্থ্যব্যবস্থার অব্যবস্থাপনাই এর জন্য দায়ী।

মীরা বলেন, ‘কোভিড -১৯-এর কারণে নয়, বরং চিকিৎসার অবকাঠামো পুরোপুরি ভেঙে পড়েছে বলেই খুব কাছের দুই তুতো ভাইকে হারিয়েছি। আমার প্রথম কাজিন প্রায় দুদিন বেঙ্গালুরুতে আইসিইউ বেড পায়নি এবং দ্বিতীয় ভাই হঠাৎ অক্সিজেন নেমে যাওয়ার পরে মারা যায়।’

মীরা জানান, দুজনেরই বয়স ৪০-এর কোঠায়। এই দুই ঘটনার পর দেশের প্রশাসনের ওপর ক্ষোভ তৈরি হয়েছে তাঁর। মীরার মত, গত বছর লকডাউন করা হয়েছিল স্বাস্থ্যব্যবস্থার উন্নতির জন্য। সম্প্রতি করোনামুক্ত হওয়া মীরা চোপড়া এখন মানসিকভাবে বিধ্বস্ত। পরিবারর সদস্যদের মৃত্যু দেখে হতভম্ব তিনি। নিজেকে অসহায় এবং অপ্রয়োজনীয় লাগছে বলে জানান মীরা।

মীরা চোপড়া দক্ষিণ ভারতীয় চলচ্চিত্রে পরিচিত মুখ। ২০০৫ সালে তামিল সিনেমা দিয়ে এ অঙ্গনে অভিষেক। বলিউডের সিনেমায়ও তাঁকে দেখা গেছে। মীরা চোপড়াকে সবশেষ ‘সেকশন ৩৭৫’ সিনেমায় দেখা গিয়েছিল। এ সিনেমায় আরও অভিনয় করেন অক্ষয় খান্না ও রিচা চাড্ডা।

আরও পড়ুন
Loading...