কাশ্মীরের নেতাদের সঙ্গে মোদির বৈঠক ফলপ্রসূ, রাখা হলো পাঁচ দাবি

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে জম্মু-কাশ্মীরের নেতাদের সর্বদলীয় বৈঠক শেষ হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলের এই বৈঠকে নরেন্দ্র মোদি ডিলিমেশন প্রসেসে (সীমানা প্রক্রিয়া) সবার সহযোগিতা চেয়েছেন।

তবে বিরোধী দলের প্রতিনিধি হিসেবে কংগ্রেসের বর্ষিয়ান নেতা গুলাম নবি আজাদ প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঁচটি দাবি রাখেন। দাবিগুলো হলো- কাশ্মীরের বিধানসভা ভোট, কাশ্মীরের পূর্ণ রাজ্যের অধিকার, কাশ্মীরের মানুষের জমির অধিকার সুরক্ষিত করা এবং কাশ্মীরের পণ্ডিতদের সসম্মানে ফিরিয়ে আনা। সেই সঙ্গে কাশ্মীরে রাজনৈতিক বন্দিদের মুক্তি দেওয়ার দাবিও জানানো হয়।

পাশাপাশি জম্মু-কাশ্মীরের যুবকদের চাকরি দেওয়ার দাবিও তোলা হয়। এদিন দীর্ঘক্ষণ ধরে চলা এই বৈঠক শেষে সব পক্ষই খুশি বলে জানা গেছে। বৈঠক সফল হয়েছে বলে দাবি করেছেন তারা।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জম্মু-কাশ্মীরের ১৪ জন নেতা। সেইসঙ্গে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং, জম্মু ও কাশ্মীরের লেফটেন্যান্ট গভর্নর মনোজ সিনহাসহ কেন্দ্রের পদস্থ কর্তারা।

বৈঠক শেষে কাশ্মীরের পিপলস কনফারেন্সের চেয়ারম্যান মুজাফফর বাগ বলেন, ‘আমরা সবাই একমত হয়েছি যে, আমাদের অবশ্যই জম্মু ও কাশ্মীরের গণতন্ত্র এবং উন্নয়নের জন্য কাজ করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী মোদি খুব ধৈর্য্য সহকারে সব শুনেছেন। তিনি আশ্বাস দিয়েছেন এবং সব বক্তব্যের জবাব দিয়েছেন। সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, সীমান্ত নির্ধারণ হয়ে গেলেই নির্বাচনী প্রক্রিয়া শুরু হবে জোরকদমে। কংগ্রেসের পক্ষ থেকে পাঁচটি দাবি রাখা হয় বৈঠকে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.