কাতারের বিপক্ষে ৫-০ গোলে হারল জামাল ভূঁইয়ারা

বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে কাতারের বিপক্ষে ৫-০ গোলে হারল জামাল ভূঁইয়ারা। আশা ছিল অন্তত সাধ্য মতো লড়াই করবে বাংলাদেশ। কিন্তু স্বাগতিকদের বিপক্ষে দাঁড়াতেই পারেনি সফরকারীরা।

শুক্রবার দোহার আব্দুল্লাহ বিন খলিফা স্টেডিয়ামে এই ম্যাচে দুই অভিজ্ঞ খেলোয়াড় ছাড়াই মাঠে নামে বাংলাদেশ। একাদশে নেই গোলকিপার আশরাফুল ইসলাম রানা ও স্ট্রাইকার নাবীব নেয়া জীবন। তাদের জায়গায় তেকাঠির নিচে ছিলেন আনিসুর রহমান জিকো ও নম্বর নাইন হিসেবে মাহবুবুর রহমান সুফিল। তাতেও রোখা যায়নি কাতারকে।

প্রথমার্ধের শুরু থেকে স্বাগতিকরা চেপে ধরে বাংলাদেশকে। একের পর এক আক্রমণ গড়ে তটস্থ করে রাখে তপু-রিয়াদুলদের।

ফিফা র‌্যাঙ্কিয়ে ১২৫ ব্যবধানে এগিয়ে থাকা দলটি শক্তিতে অনেক এগিয়ে। তাই আক্রমণ শাণিয়েছে ম্যাচের শুরু থেকে। তবে বাম দিক দিয়ে ফরোয়ার্ড আকরাম হাসান আফিফ ছিলেন অনন্য। শুরুতে তার ক্রস থেকে আহমেদ আলাদিনের হেড বারের নিচে লেগে প্রতিহত হয়েছে। তবে ৯ মিনিটে কাতার লক্ষ্যভেদ করে এগিয়ে গেছে ঠিকই। সতীর্থের কাটব্যাক থেকে মিডফিল্ডার আব্দেল আজিজের শট বাংলাদেশের এক ডিফেন্ডারের শরীরে লেগে দিক পরিবর্তন করে জড়ায় জালে। বার বার আক্রমণে ওঠা কাতার ৩১ মিনিটেও চেষ্টা করেছিল আবার। কিন্তু আকরাম হাসান আফিফের শট কোনমতে রুখে দিয়েছেন গোলকিপার জিকো। দুই মিনিট পর অবশ্য কাতার নিজেদের মুন্সিয়ানা দেখিয়ে ব্যবধান করে নেয় ২-০।

বিরতিতে যাওয়ার আগেও কাতারের আক্রমণ ছিল অব্যাহত। বিপরীতে জামাল-সুফিলরা প্রতি আক্রমণে উঠে একাধিকবার স্বাগতিকদের সীমানায় বল নিয়ে গেলেও তাদের সেভাবে কোনো সুযোগ দেয়নি স্বাগতিকরা।

বাংলাদেশ দল: আনিসুর রহমান জিকো, রহমত মিয়া,তপু বর্মণ, রিয়াদুল হাসান, বিশ্বনাথ ঘোষ, জামাল ভূঁইয়া, সোহেল রানা, বিপলু আহমেদ, সাদ উদ্দিন, মোহাম্মদ ইব্রাহিম ও মাহবুবুর রহমান সুফিল।

আরও পড়ুন
Loading...