করোনা পরীক্ষার ভিড় বাড়ছে হাসপাতালে

এবছরের মার্চ মাস থেকে দেশে দ্বিতীয় দফা করোনা সংক্রমণ বাড়তে শুরু করে। জুন মাসের শেষে দৈনিক শনাক্তের হার ২৮ শতাংশে ওঠে। ফলে করোনার নমুনা পরীক্ষা করাতে ভিড় বাড়ছে হাসপাতালে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য বলছে, মে মাসের তুলনায় জুনে নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বেড়েছে দুই লাখ। নমুনা পরীক্ষা করাতে গিয়ে মানুষের ভোগান্তিও হচ্ছে।

করোনা ভাইরাসের ভারতীয় ধরণ ডেল্টা দেশে ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে সংক্রমণ উর্ধ্বমুখি। গেল তিন মাসে সংক্রমনের হার বেড়েছে প্রায় তিনগুন। উপসর্গ নিয়ে নমুনা পরীক্ষা করাতে মানুষ ভিড় করছেন বিভিন্ন হাসপাতালে।

অনলাইনে বা সরাসরি নিবন্ধন সাপেক্ষে রাজধানীর হাসপাতালগুলোতে প্রতিদিন একশ’ থেকে দেড়শ’ নমুনা সংগ্রহ করা হয়। কেবল বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে প্রতিদিন সর্বোচ্চ সাড়ে চারশ’ নমুনা দেয়া যায়। চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় অনেকে সময় মত করোনার নমুনা পরীক্ষা করাতে পারছে না। করোনার নেগেটিভ সনদ না থাকায় অন্যরোগে আক্রান্তরা হাসপাতালে ভর্তিও হতে পারছে না।

মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আরটিপিসিআর মেশিন নষ্ট থাকায় পরীক্ষার সংখ্যা কমে গেছে। চলতি বছরের প্রথম তিন মাসের তুলনায় গত তিন মাসে করোনা পরীক্ষা বেড়েছে প্রায় পাঁচ লাখ। এসময় ল্যাবের সংখ্যাও বেড়েছে।

করোনা রোগী চিহ্নিত করতে আরটিপিসিআর পরীক্ষার পাশাপাশি র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট ও জিন এক্সপার্ট টেস্টও করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.