করোনা নিয়ে ফেসবুক মেসেঞ্জারে গুজব ছড়ানো সেই চিকিৎসক যুবদল নেতা

করোনা ভাইরাসের কারনে চট্টগ্রামে মানুষের মৃত্যু নিয়ে গুজব ছড়ানোর দায়ে পুলিশের হাতে আটক সেই চিকিৎসক ইফতেখার আদনান যুবদল নেতা বলে জানিয়েছে পুলিশ। আজ শনিবার (২১ মার্চ) রাতে পাঁচলাইশে উপ-কমিশনার উত্তরের কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের (সিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) শ্যামল কুমার নাথ।

গ্রেফতার ডাক্তার ইফতেখার আদনান চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শ্যামল কুমার নাথ জানান, করোনার কারনে বাংলাদেশে অনেক মানুষের মৃত্যু হয়েছে এবং সরকার সেই তথ্য গোপন করছে উল্লেখ করে একটি অডিও ক্লিপ তৈরি করেন ডা. ইফতেখার আদনান। জনমনে ভীতি তৈরি করে সরকারকে বেকায়দায় ফেলার উদ্দেশ্যে ইফতেখার আদনান এ অডিও ক্লিপ তৈরি করেন।

শনিবার বিকেলে নগরের একটি রেস্টুরেন্ট থেকে আটক করা হয় বলে জানান সিএমপির উপ-কমিশনার (উত্তর) বিজয় বসাক। ডা. ইফতেখার আদনান নগরের দুই নম্বর গেইট মেয়র গলির বাসিন্দা। তিনি ইউএসটিসি মেডিকল থেকে এমবিবিএস পাশ করে আবুল খায়ের গ্রুপ ও মেডিকেল সেন্টারে কর্মরত বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বিজয় বসাক জানান, সম্প্রতি ফেসবুক মেসেঞ্জারে একটি অডিও ক্লিপ ভাইরাল হয়। অডিওতে রোহান নামে একজনকে উদ্দেশ্য করে ইফতেখার আদনান কিছু মিথ্যা তথ্য দেন। করোনার কারনে বাংলাদেশে অনেক লোক মারা গেছে এবং এসব তথ্য সরকার গোপন করছে বলে মিথ্যা তথ্য দেন। তদন্তে নেমে পুলিশ আদনানকে শনাক্ত করে।

তিনি জানান, ইফতেখার আদনান পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন অডিওটি তিনি তৈরি করেছেন। ইফতেখার আদনানকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। ডাক্তার ইফতেখার আদনান চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক বলে বাংলানিউজকে নিশ্চিত করেছেন মহানগর যুবদলের সভাপতি মোশাররফ হোসেন দীপ্তি।

আরও পড়ুন
Loading...