করোনায় বিশ্বে আরো ১০ হাজার মৃত্যু

মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে ৯ হাজার ৯৫৯ জন মারা গেছেন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় মৃত্যু বেড়েছে ২ হাজারের বেশি। এতে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা ৪৩ লাখ ২৫ হাজার ৭২০ জনে পৌঁছেছে।

একই সময়ে প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬ লাখ ৭ হাজার ৩১৮ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ৮৫ হাজার। এতে মহামারির শুরু থেকে ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২০ কোটি ৪৭ লাখ ২৩ হাজার ৮৬৭ জনে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে বুধবার সকালে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। এ সময়ে দেশটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৯৭০ জন। করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এ দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩ কোটি ৬৮ লাখ ৯১ হাজার ৯৩১ জন আক্রান্ত এবং ৬ লাখ ৩৪ হাজার ৬৬২ জন মারা গেছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে ইন্দোনেশিয়ায়। এ সময়ে দেশটিতে মারা গেছেন ২ হাজার ৪৮ জন এবং নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩২ হাজার ৮১ জন। এছাড়া মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩৭ লাখ ১৮ হাজার ৮২১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ১০ হাজার ৬১৯ জনের।

আর লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ হাজার ১৮৩ জন এবং নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৫ হাজার ২৪৫ জন। অপরদিকে মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২ কোটি ২ লাখ ১৩ হাজার ৩৮৮ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৬৪ হাজার ৮৯০ জনের।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় এবং মৃতের সংখ্যার তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪৬৮ জন এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৬ হাজার ৩১৬ জন। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৩ কোটি ২০ লাখ ৩৩ হাজার ৩৩৩ জন এবং মারা গেছেন ৪ লাখ ২৯ হাজার ১৮৩ জন।

এছাড়া এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে ৬৩ লাখ ৩৯ হাজার ৫০৯ জন, রাশিয়ায় ৬৪ লাখ ৯১ হাজার ২৮৮ জন, যুক্তরাজ্যে ৬১ লাখ ১৭ হাজার ৫৪০ জন, ইতালিতে ৪৪ লাখ ৬ হাজার ২৪১ জন, তুরস্কে ৫৯ লাখ ৬৮ হাজার ৮৬৮ জন, স্পেনে ৪৬ লাখ ৪৩ হাজার ৪৫০ জন, জার্মানিতে ৩৮ লাখ ৩ হাজার ৩৩২ জন এবং মেক্সিকোতে ২৯ লাখ ৭৮ হাজার ৩৩০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

আর করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে এক লাখ ১২ হাজার ৩৫৬ জন, রাশিয়ায় এক লাখ ৬৬ হাজার ৪৪২ জন, যুক্তরাজ্যে এক লাখ ৩০ হাজার ৫০৩ জন, ইতালিতে এক লাখ ২৮ হাজার ২৭৩ জন, তুরস্কে ৫২ হাজার ৪৩৭ জন, স্পেনে ৮২ হাজার ২২৭ জন, জার্মানিতে ৯২ হাজার ৩১২ জন এবং মেক্সিকোতে ২ লাখ ৪৪ হাজার ৬৯০ জন মারা গেছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর গত বছরের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করা হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.