করোনায় আক্রান্ত হওয়ার তিন লক্ষণ

করোনা ভাইরাস মহামারীর রূপ নিয়েছে বিশ্বে। আজ পর্যন্ত ১৮৭টি দেশে ছড়িয়েছে করোনা সংক্রমণ। করোনার চিকিৎসায় উল্লেখযোগ্য কোন ওষুধ এখন পর্যন্ত আবিষ্কার হয়নি।

পুরো বিশ্বের সঙ্গে করোনা আতঙ্কে ভুগছে আমাদের দেশও। দেশে ইতোমধ্যে এই রোগে মৃত্যু হয়েছে দুজনের। আক্রান্ত মোট ২৭ জন। সাম্প্রতিক একটি মেডিকেল জার্নালে তিনটি লক্ষণের কথা বলা হয়েছে। যেখান থেকে আপনি বুঝতে পারবেন আপনার দেহে COVID-19 এর সংক্রমণ শুরু হয়েছে কিনা!

প্রথমত, আপনার দেহে করোনা থাবা বসালে প্রথম পাঁচদিন আপনার কাশির সঙ্গে শুকনো কফ থাকবে।

দ্বিতীয়ত, হঠাৎ করেই খুব জ্বর আসবে। সেই জ্বর চট করে নামতে চাইবে না।

তৃতীয়ত, জ্বরের সঙ্গে শুরু হবে শ্বাসকষ্ট। সংক্রমণ দ্রুত ছড়িয়ে পড়বে ফুসফুসে। ফুসফুস ফুলে ওঠা থেকে নানারকম সমস্যা দেখা দেবে শরীরে। সেই সঙ্গে সারা শরীরে ব্যথা এবং সর্দি থাকবে।

করোনা সতর্কতায় কী করবেন আর কী করবেন না?

  • সাবান বা অ্যালকোহল দেওয়া স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধুতে হবে। অন্তত ২০ সেকেন্ড সাবান দিয়ে ভাল করে আঙুলসহ হাতের দু’পিঠ ধুতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে আঙুলের খাঁজ যেন পরিষ্কার থাকে।
  • হাঁচি, কাশি হচ্ছে এমন ব্যক্তির থেকে ১ মিটার বা ৩ ফুট দূরে থাকতে হবে।
  • চোখে, মুখে, নাকে হাত দেওয়া যাবে না।
  • একান্ত প্রয়োজন হলে আগে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে নিতে হবে। অথবা স্যানিটাইজারে হাত পরিষ্কার করে নিতে হবে।
  • অন্যের মুখনিঃসৃত জলীয় পদার্থ থেকে নিজেকে দূরে রাখতে হবে।
  • হাঁচি বা কাশির সময় কনুই দিয়ে হাত মুড়ে মুখে চাপা দিতে হবে। অথবা টিস্যু ব্যবহার করতে হবে।
  • প্রকাশ্যে কফ বা থুতু ফেলা যাবে না।
  • সর্দি, কাশি, জ্বর, শ্বাসকষ্ট হলেই দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।
  • সুস্থ মানুষের মাস্ক পরার প্রয়োজন নেই, তবে আক্রান্তের কাছে গেলে বা জনবহুল এলাকায় মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।
  • মাস্ক পরার আগে সাবান বা অ্যালকোহল দেওয়া স্যানিটাইজার দিয়ে ভাল করে হাত ধুয়ে নিতে হবে।
  • মাস্ক পরার পর আর মাস্কে হাত দেওয়া যাবে না। হাত দিতে হলে হাত ধুয়ে নিতে হবে।
  • মাস্ক খোলার সময় খেয়াল রাখতে হবে মাস্কে যেন হাত না লাগে।
  • মাস্ক খুলতে হবে পেছন দিক দিয়ে খুলতে হবে।
  • সময়সীমা পেরিয়ে গেলে ব্যবহৃত মাস্ক ঢাকা দেওয়া ডাস্টবিনে ফেলতে হবে।
  • বড় জমায়েত এগিয়ে চলতে হবে।
  • ঘরবাড়ি একটু বেশি যত্ন নিয়ে পরিষ্কার রাখতে হবে।
আরও পড়ুন
Loading...