করোনাভাইরাস : টলিউডের সব শুটিং স্থগিত, বন্ধ হচ্ছে মেগা সিরিয়াল

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে বলিউডের পর এবার পশ্চিমবঙ্গের চলচ্চিত্র ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি টলিউডের শুটিংও বন্ধ হয়ে গেল। টলিউডের ধারাবাহিক, সিনেমা ও রিয়্যালিটি শোয়ের শুটিং আগামী ৩০ মার্চ পর্যন্ত বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন টলিউডের প্রযোজক-পরিচালক ও কলাকুশলীরা। এদিকে শুটিং বন্ধ হয়ে যাওয়ার সমস্যায় পড়তে পারে জি বাংলাসহ বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে নিয়মিত প্রচারিত মগা সিরিয়ালগুলো। কারণ নিয়মিত যে সিরিয়ালগুলো টেলিকাস্ট হয়, তার জন্য আগে থেকে তৈরি অ্যাপিসোড থাকে মাত্র কয়েকদিনের। এরপরই সিরিয়াল নিয়ে সমস্যায় পড়বে এ চ্যানেলগুলো।

পশ্চিমবঙ্গ চলচ্চিত্র কেন্দ্র নন্দনে গতকাল মঙ্গলবার উদ্ভুত করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে এক জরুরি সভায় টলিউডের শুটিং বন্ধের এ সিদ্ধান্ত হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের পূর্তমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস, কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের চেয়ারম্যান রাজ চক্রবর্তী, ইস্টার্ন ইন্ডিয়া মোশন পিকচার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ইমপা) সভাপতি পিয়া সেনগুপ্ত, অভিনেতা শান্তিলাল মুখোপাধ্যায়, পরিচালক অরিন্দম গঙ্গোপাধ্যায় ও অভিনেত্রী জুন মালিয়া প্রমুখ।

সভা শেষে রাজ চক্রবর্তী ও অরিন্দম গঙ্গোপাধ্যায় জানান, ৩০ মার্চ পর্যন্ত টলেউডের সব শুটিং বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আর করোনা থেকে বাঁচতে সোমবার (১৬ মার্চ) রাজ্যের সব সিনেমা হল বন্ধ রাখার আবেদন জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার অনুরোধ মেনে ১৬ মার্চ স্টার থিয়েটারসহ একাধিক সিনেমা হলের মালিক সিনেমা হল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেন। মঙ্গলবার ইমপার পক্ষ থেকেও এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেয়া হয়।

সভা সূত্রে জানা গেছে, মুখ্যমন্ত্রী ও সিনে অ্যাসোসিয়েশনের সিদ্ধান্ত মেনে টালিগঞ্জের সব শুটিং বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। যারা শুটিংয়ের কাজে বাইরে রয়েছেন তাদের কাছেও পৌঁছে দেয়া হয়েছে এ নির্দেশ। অবিলম্বে তারাও শুটিং বন্ধ করে দেবেন বলে জানানো হয়েছে। টলিউডের শিল্পী, কলাকুশলী ও প্রযোজক-পরিচালকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আগামী ৩০ মার্চের আগে কোনো শুটিং শুরু করবে না তারা। তবে এ নিয়ে রিভিউ সভা ডেকেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার সিদ্ধান্তের ওপরই নির্ভর করছে টলিপাড়ার ভবিষ্যৎ।

এদিকে মেগা সিরিয়ালগুলো বন্ধের যে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে সে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন ধারাবাহিক নির্মাতারা। তবে জানা গেছে, চ্যানেলগুলো সিরিয়ালের পুরোনো অ্যাপিসোড ঘুরিয়ে ফিরেয়ে দেখাতে পারেন। অর্থাৎ রিপিট টেলিকাস্ট হবে এক্ষেত্রে।

আরও পড়ুন
Loading...