এবার অনলাইনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা

করোনাভাইরাসের প্রকোপে এখনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ফটকে তালা ঝুলছে। তবে অনলাইনে ভার্চুয়াল ক্লাস চলছে। এমন পরিস্থিতির মধ্যে পিএসসি, জেএসসি, এসএসসি এবং এইসএসসি অটো উত্তীর্ণ করার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির বিষয়ে এবার এলো নতুন খবর।

শনিবার (১৭ অক্টোবর) জানানো হয়, শিক্ষার্থীদের এবার পরীক্ষা দিয়েই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে হবে। তবে, এই পরীক্ষা অনলাইনে নেয়া হবে। একটি অ্যাপসের মাধ্যমে অনলাইনে বা অফলাইনে পরীক্ষায় শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করতে পারবেন। এ জন্য একটি সফটওয়্যার তৈরি করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

উপাচার্যদের সংগঠন ‘বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদ’ আজ শনিবার সন্ধ্যায় এই সিদ্ধান্ত নেয়। সংগঠনের সভাপতি অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলমের সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল ওই সভায় বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিরা অংশগ্রহণ করেন।
গুচ্ছভিত্তিক বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ভিসি অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, বৈঠকে সব বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিদের সম্মিলিত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন অর রশিদ বলেন, আমরা অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বঙ্গবন্ধু ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ নূরের উদ্ভাবিত সফটওয়্যার ব্যবহার করে এই পরীক্ষা নেয়া হবে।

বৈঠক সূত্র জানায়, এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা বাতিলের পর জিপিএ’র ভিত্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির যে দাবি উঠেছিল সেটি নাকচ করে দেয়া হয়েছে। একইসঙ্গে বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় সশরীরে পরীক্ষা না নিয়ে অনলাইনে পরীক্ষা নেয়ার পক্ষে মত দিয়েছেন অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যরা।

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. রফিকুল আলম বলেন, করোনার কারণে এবার বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তি পরীক্ষা সরাসরি না নেওয়ার পরিকল্পনা হচ্ছে। সেই জন্য সফওয়্যার মাধ্যম ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত হচ্ছে। সেই অনুযায়ী একটি অ্যাপস তৈরি করা হচ্ছে। যেটির মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা তাদের মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পারবে।

আরও পড়ুন
Loading...