উয়েফা সুপার কাপ চ্যাম্পিয়ন চেলসি

বদলি গোলরক্ষক কেপা আরিসাবালাগার নৈপুন্যে স্প্যানিশ ক্লাব ভিয়ারিয়ালকে হারিয়ে উয়েফা সুপার কাপের চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ইংলিশ ক্লাব চেলসি।

বুধবার দিবাগত রাতে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের বেলফাস্টের উইন্ডসর স্টেডিয়ামে টাইব্রেকারে ৬-৫ গোলে জিতেছে চেলসি। নির্ধারিত ৯০ মিনিটের লড়াই ১-১ সমতার পর অতিরিক্ত সময়ও এই স্কোরলাইনে শেষ হয়।

পেনাল্টি শুট আউটে দুই দলই প্রথম পাঁচ শটে চারটি করে গোল করে। ছয় নম্বর শটেও সফল উভয় পক্ষ। চেলসির সাত নম্বর শটটি আন্টোনিও রুডিগার জালে পাঠানোর পর ভিয়ারিয়ালের রাউল আলবিওলের শট রুখে দেন আরিসাবালাগা। শিরোপা জয়ের উল্লাসে ভাসে প্রিমিয়ার লিগের দলটি।

ম্যাচের ২৭তম মিনিটে হাকিম জিয়েচির গোলে এগিয়ে গিয়েছিল চেলসি। তার গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় থমাস তুখেলের শিষ্যরা। বিরতির পর ম্যাচের ৭৩তম মিনিটে জেরার্ড মরেনোর গোলে সমতা ফেরায় ভিয়ারিয়াল। ১-১ এ শেষ হয় নির্ধারিত ৯০ মিনিটের খেলা।

এরপর ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। অতিরিক্ত সেই ৩০ মিনিটেও এগিয়ে যেতে পারিনি কোনো দলই। ফলে ম্যাচ টাইব্রেকারে গড়ায়। টাইব্রেকারেও ম্যাচ সমতায় থাকে, পাঁচটি করে শট করে দুদলই চারটি গোল দেয়। এরপর খেলা গড়ায় সাডেন ডেথে।

এই নিয়ে ৪৭টি সুপার কাপ ম্যাচের মাত্র তিনটি গড়ালো টাইব্রেকারে এবং সবকটিতেই জড়িয়ে চেলসির নাম। আগের দুবারে দুটিতেই হেরেছিল তারা; ২০১৩ সালে বায়ার্ন মিউনিখ ও ২০১৯ সালে লিভারপুলের বিপক্ষে।

টাইব্রেকারে প্রতিপক্ষের প্রথম শটও ঠেকিয়ে শিরোপার আশা জাগান আসেনহো। কিন্তু পরে আর পারেননি তিনি।

১২০ মিনিটের প্রায় পুরোটা সময় বাইরে বসে থাকা আরিসাবালাগা মোট দুটি শট ঠেকিয়ে নায়ক বনে যান। টাইব্রেকারেই ভাবনাতেই মূল গোলরক্ষক মঁদিকে ১১৯তম মিনিটে বসিয়ে বিশ্বের সবচেয়ে দামি গোলরক্ষককে নামান টুখেল। আলবিওলের শট ঠেকানোর আগে আইসা মান্ডির প্রচেষ্টাও রুখে দেন এই স্প্যানিয়ার্ড।

ফলে সাডেন ডেথে ভিয়ারিয়ালকে ৬-৫ গোলে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মত ইউরোপা সুপার কাপ জিতে নেয় চেলসি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.