আবারও জামিন পেলেন পরীমণি

বনানী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় আবারও জামিন পেয়েছেন চিত্রনায়িকা পরীমণি। রবিবার (১০ অক্টোবর) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সত্যব্রত শিকদারের আদালত তার জামিনের আদেশ দেন।

এ দিন পরীমনির জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় এবং মামলাটির ধার্য তারিখ থাকায় পরীমণি আদালতে হাজির হয়ে তার আইনজীবীর মাধ্যমে আত্মসমর্থন করে আবারও জামিনের আবেদন করেন। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষ থেকে জামিনের বিরোধিতা করা হয়। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত পরীমণির জামিন মঞ্জুর করেন।

গত ৪ অক্টোবর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক কাজী মোস্তফা কামাল পরীমণিসহ তিন জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। অভিযুক্ত অপর দুই আসামি হলেন— আশরাফুল ইসলাম দিপু ও কবির হোসেন।

চলতি বছর ১৪ জুন দুপুরে সাভার থানায় নির্যাতন ও ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে ছয় জনের নামে মামলা দায়ের করেন চিত্রনায়িকা পরীমণি। মামলায় ব্যবসায়ী নাসির ইউ মাহমুদকে প্রধান আসামি করা হয়। এরপর বেশ কিছু সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ হলে ব্যাপক আলোচনায় আসেন পরীমণি। এরই ধারাবাহিকতায় ৪ আগস্ট রাতে বনানীর বাসায় অভিযান চালিয়ে সহযোগীসহ পরীমণিকে আটক করে র‍্যাব। এসময় তার বাসা থেকে বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য জব্দ করা হয় বলে জানানো হয়। আটকের পর তাদের নেওয়া হয় র‍্যাব সদর দফতরে।

পরে র‍্যাব-১ বাদী হয়ে মাদক আইনে পরীমণির বিরুদ্ধে মামলা করে। পরে তিন দফায় মোট সাত দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয় ঢাকাই চলচ্চিত্রের অন্যতম শীর্ষ এই নায়িকাকে। বারবার তাকে রিমান্ডে নেওয়া নিয়ে ব্যাপক আলোচনার মধ্যে গত ৩১ আগস্ট ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কেএম ইমরুল কায়েশের আদালত ৫০ হাজার টাকার মুচলেকায় পরীমণির জামিন মঞ্জুর করেন।

একইদিনে আদালত চার্জশিট গ্রহণের পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ ও সেই দিন পর্যন্ত পরীমণিকে জামিন দেন। সে অনুযায়ী আজ রবিবার (১০ অক্টোবর) সেই তারিখ ধার্য থাকায় পরীমণি আদালতে হাজির হয়েছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.