আফগানিস্তানে তালগোল পাকিয়ে ফেলেছে যুক্তরাষ্ট্র: ইমরান

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তানে একেবারেই তালগোল পাকিয়ে ফেলেছে। তিনি ২০০১ সালে আফগানিস্তানে মার্কিন হামলার উদ্দেশ্য নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন।

আমেরিকান সংবাদ অনুষ্ঠান পিবিএস নিউজ আওয়ারে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এই প্রশ্ন তুলেছেন। আফগান পরিস্থিতির একমাত্র সমাধান রাজনৈতিক মীমাংসা বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

ইমরান খান বলেছেন, আমি মনে করি আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্র একেবারেই ভজঘট পাকিয়ে ফেলেছে।

আফগানিস্তান থেকে সব বিদেশি সেনা প্রত্যাহারে তালেবানের সঙ্গে চুক্তি করেছিল যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো জোট। চুক্তিতে বলা হয়েছে, আইএসসহ যে কোনো চরমপন্থিদের উত্থান ঠেকাবে তালেবান এবং বিনিময়ে সব বিদেশি প্রত্যাহার করা হবে। আগামী ৩১ আগস্টের মধ্যে সব মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। অবশ্য নির্ধারিত তারিখের আগেই ৯০ শতাংশ মার্কিন সেনা আফগানিস্তান ত্যাগ করেছে।

১৯৯৬ থেকে ২০০১ সালে আফগানিস্তানের ক্ষমতায় ছিল তালেবান। আল-কায়েদা নেতা ওসামা বিন লাদনকে হস্তান্তরে অস্বীকৃতি জানানোয় ২০০১ সালের অক্টোবরে আফগানিস্তানে হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র।

আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্র সামরিক সমাধান চেয়েছিল অভিযোগ করে ইমরান খান বলেন, ‘আমার মতো যারা আফগানিস্তানের ইতিহাস জানে তারা বলেছিল, কোনো সামরিক সমাধান নেই। আমার মতো লোকজনকে আমেরিকান বিরোধী বলা হয়েছিল। আমাকে তালিবান খান বলে ডাকা হতো।’

পাকপ্রধানমন্ত্রী আফসোস করে বলেন, এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র বুঝতে পেরেছে আফগানিস্তানে কোনো সামরিক সমাধান হবে না। তবে দুর্ভাগ্যবশত যুক্তরাষ্ট্র কিংবা ন্যাটো তাদের দর কষাকষির ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.