লাইফষ্টাইল

উপযুক্ত জীবনসঙ্গী নির্বাচনের ৪ উপায়

উপযুক্ত জীবনসঙ্গী নির্বাচনের ৪ উপায়


Warning: printf(): Too few arguments in /home/shamajsh/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
উপযুক্ত জীবনসঙ্গী হিসেকে কাকে নির্বাচিত করবেন, এ নিয়ে তরুণ প্রজন্মের বহু মানুষই গলদঘর্ম হন। এ লেখায় দেওয়া হলো চারটি লক্ষণ। এ লক্ষণ দেখে নির্ণয় করুন আপনার উপযুক্ত জীবনসঙ্গী। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে বিজনেস ইনসাইডার। ১. একে অন্যের বৈশিষ্ট্যের প্রতি অনুরক্ত এটি অনেকটা ‘বিপরীত আকর্ষণ’-এর মতো। দুজন মানুষের শখ কিংবা অন্যান্য বিষয় যে হুবহু মিল হবে এমনটা চিন্তা করা উচিত নয়। কিন্তু একে অন্যের প্রতি মূল্য দেওয়া এবং একে অন্যের নানা বৈশিষ্ট্যের প্রতি অনুরক্ত হওয়া হতে পারে একটি বড় বিষয়। আপনি যদি কারো নানা বৈশিষ্ট্যের প্রতি অনুরক্ত হন এবং সে ব্যক্তি যদি আপনার নানা বৈশিষ্ট্যের প্রতি অনুরক্ত হয় তাহলে বিষয়টিকে গুরুত্ব দেওয়া উচিত। এ ক্ষেত্রে উভয়ের মাঝেই থাকতে পারে কোনো বিষয়ে মাত্রাতিরিক্ত আগ্রহ কিংবা শখ। এ বিষয়টিতে যদি অন্যজন অনুরক্ত হয় তাহলে তা সত্যিই সম্পর্ক গড়তে বড় ধরনের সুবিধা দেয়। ২. আপনার সঙ্গ
ভারি খাবারের আগে স্যুপ খান, ওজন কমান

ভারি খাবারের আগে স্যুপ খান, ওজন কমান


Warning: printf(): Too few arguments in /home/shamajsh/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
অনলাইন ডেস্ক: নিয়মিত স্যুপ খেয়েই আপনি কমিয়ে ফেলতে পারেন বাড়তি ওজন। বেশ কয়েকটি গবেষণায় দেখানো হয়েছে, ভারি খাবার গ্রহণের আগে স্যুপ খেলে খিদে দূর করে অনেকখানি। এরপর এটি বেশি ক্যালোরিযুক্ত খাবার খেতে নিরুৎসাহিত করে। অন্য এক গবেষণা বলছে, হালকা খাবার হিসেবে চিপস কিংবা নোনতা বিস্কুটের পরিবর্তে স্যুপ খেলে ওজন কমানো যায় ৫০ শতাংশ বেশি। এমনকি দিনের প্রতিবার খাবারের আগে স্যুপ খেলেও একই পরিমাণ ক্যালোরি পাওয়া যায়। কিন্তু স্যুপের মাধ্যমে ওজন কমানো প্রক্রিয়ার রহস্য কী? পেনসিলভানিয়া স্টেট ইউনিভার্সিটির পুষ্টি  বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর বার্নার রোলস বলছেন, খাবারসহ স্যুপে থাকা পানি দীর্ঘ সময় ধরে পেট পূর্ণ রাখে। এতে গ্যাস্ট্রিক কাছে আসতে পারে না। তিনি লিখেছেন, 'স্যুপের তরলে যে ওজন ও ঘনত্ব থাকে তা আপনাকে অনেক বেশি ক্যালোরি ছাড়াই সন্তুষ্ট রাখে। 'স্যুপিং ট্রেন্ড স্যুপে ওজন কমার সুবিধা থাকার কারণে গত কয়েক
চুলে রোগ রহস্য

চুলে রোগ রহস্য


Warning: printf(): Too few arguments in /home/shamajsh/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
মানুষের সৌন্দর্য ভাবনার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ চুল নিয়ে। চুলের সমস্যা দূর করতে নানা উপায় রয়েছে। এসব উপায়ে সমস্যা দূরও হয়। কিন্তু আপনি কী জানেন, চুলের সমস্যা কেবল বহিরাগত কারণ নয়, শরীরের অভ্যন্তরীণ নানা সমস্যা উপসর্গ হিসেবে দেখা দেয় চুলে। সুতরাং, সমস্যা যখন ভেতরে, তখন ভেতরের রোগ দূর করতে হবে। তবে তার আগে চলুন জেনে নিই, চুলের পাঁচটি বিষয় যা তুলে ধরবে আপনার স্বাস্থ্য সমস্যা: বেশি তৈলাক্ত সম্ভাব্য কারণ: চাপ, রোদে পোড়া এবং বেশি দুগ্ধজাত দ্রব্য গ্রহণ জিম থেকে বেরিয়ে ঘেমে যাওয়া শরীরে মাথার চুল দেখায় তেলচিটে- সেটি অন্য জিনিস। কিন্তু স্বাভাবিক অবস্থায় আপনার চুল যদি অমন দেখায়, তবে বুঝতে হবে আপনি চাপে আছেন। সেক্ষেত্রে চাপ কমাতে হবে। কেননা, চাপে থাকলে শরীরের অ্যাড্রিনাল গ্রন্থি থেকে কর্টিসন নামের হরমোন নিঃসরণের পরিমাণ বেড়ে যায়। এতে মাথার খুলিতে তেল উৎপাদন বাড়ে। ফলে চুল হয়ে ওঠে তৈলাক্ত। রোদ
জেনে নিন চুল কালো করার ঘরোয়া উপায়

জেনে নিন চুল কালো করার ঘরোয়া উপায়


Warning: printf(): Too few arguments in /home/shamajsh/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
আঁখি বিশ্বাস: বয়সের আগেই চুল পাকে অনেকের। চুল পাকা নিয়ন্ত্রণে বা পাকা চুল কালো করতে অনেক কিছুই করে থাকেন আপনি। অনেক সময় দেয়া যায় বয়স ৪০ পেরোলেই চুলে পাক ধরতে শুরু করে। দিনের পর দিন এই চুল পাকা বাড়তে পারে। তবে চুল পাকা সত্যি একটি অস্বস্তিকর ব্যাপর। কারণ ৪০ বছর বয়সে যদি আপনার চুল পাকতে শুরু করে তবে অনেকে ভেবে নেবে আপনার বয়স বেড়ে গেছে। এছাড়া আপনার বাহ্যিক সৌন্দর্য নষ্ট হবে চুল পাকার কারণে। আবার পাকা চুলের কারণে আপনার মনও খারাপ হয় এবং হীনমন্যতায়ও ভোগেন। তবে কি চুল রং করবেন। চুলে কৃত্রিম রং ব্যবহারের করলে চুল রুক্ষ হয়ে যায়। আবার অনেক সময় দেখা যায় আপনার চুল পড়তে থাকে। আমরা অনেকে জানি যে আমাদের শরীরে পুষ্টির ঘাটতি দেখা দিলে চুল পাকে। চুল কালো কার জন্য আমরা অনেকে চলে বিভিন্ন উপাদান মাখি। কিন্তু চুলে মাখার চেয়ে তা যদি আপনি খান তাতে বেশি উপকার পাওয়া যায়। তবে কী করবেন? চুল পাকার থেকে রেহাই পেতে ডাক্ত
নিজেকে সাজিয়ে নিন বৈশাখী মেকআপে

নিজেকে সাজিয়ে নিন বৈশাখী মেকআপে


Warning: printf(): Too few arguments in /home/shamajsh/public_html/wp-content/themes/viral/inc/template-tags.php on line 113
প্রতিবারের মতো এবারও ওমেন্স ওয়ার্ল্ডের সিইও বিউটি এক্সপার্ট ফারনাজ আলম জানিয়েছেন কীভাবে সাজতে হবে বর্ষ বরণে।  তিনি বলেন, প্রথমে ঠাণ্ডা পানিতে মুখ ধুয়ে প্যানকেক বা কমপ্যাক্ট পাউডার দিয়ে মুখে বেইস করে নিন। সকালে ও রাতে বাদামি, গাঢ় বাদামি বা পিচ্ রঙের ব্লাশন ব্যবহার করতে পারেন। সাদা ও সোনালি রঙের মিশ্রণে আইশ্যাডো দিয়ে চোখটাকে সাজাতে পারেন। চোখকে স্মোকি করেও সাজাতে পারেন। ঠোঁটে হালকা রঙের লিপস্টিক ব্যবহার করতে হবে। তবে সাজে ভিন্ন মাত্রা আনতে চাইলে হালকা মেকআপের সঙ্গে ঠোঁটে চড়া লাল রঙ দিতে পারেন। কপালের টিপ সাজকে আরও উৎসবমুখর করে ও পূর্ণতা দেয়। সঙ্গে  পরুন হাত ভর্তি কাচের চুড়ি। চুল অনেক সময় বাইরে ঘুরলে খোলা চুলে অস্বস্তি হতে পারে। চাইলে সামনের দিকের কিছুটা চুল ব্যাককোম্ব করে নিতে পারেন। পেছনে চুল আটকানোর জায়গাটিতে আটকে দিতে পারেন পছন্দের ফুল। হালকা অথবা আঁটসাঁট করে খোঁপাও