শীতে ঘি খাওয়া যে কারণে জরুরি

শীতের সময়টাতে আবহাওয়া শুষ্ক থাকায় ত্বকের নানা সমস্যা দেখা দেয়। শরীর এই সময় হাইড্রেট রাখা রীতিমত চ্যালেঞ্জিং ব্যাপার। কেননা ঠাণ্ডা থাকায় পানি কম পান করার ফলে শরীর ডিহাইড্রেট হয়ে পরে। এতে করে শরীরে নানা সমস্যা দেখা দেয়।

এজন্য খাবারের দিকটা একটু বেশি নজরে রাখতে হবে। ই শীতে শরীরটাকে চাঙা রাখতে ঘি বেশ শক্তি জোগায়। খাঁটি ঘিয়ে রয়েছে বিস্ময়কর কিছু গুণ, যা এই শীতে শরীরের জন্য দারুণ উপকারী। এটি স্যাচুরেটেড ফ্যাট বা সম্পৃক্ত চর্বির উৎস। যদিও ঘি খাওয়ার বিষয়ে নানা বিতর্ক রয়েছে, তবে আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে ঘি স্বাস্থ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ উপাদান বলে বর্ণনা করা হয়েছে।

‘ইন্ডিয়ান জার্নাল অব মেডিকেল রিসার্চ’–এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, সর্দি-কাশি সারাতে, দুর্বলতা কাটাতে, ত্বকের সমস্যা দূর করতে ঘি ব্যবহৃত হয়। এ ছাড়া ঘিয়ে পেঁয়াজ ভেজে খেলে গলা ব্যথা সারে। এছাড়াও আরো কিছু উপকার পাওয়া যায় ঘি খেলে। জেনে নিন সেগুলো-

> এটি ত্বকের শুষ্কতা দূর করে এবং ময়শ্চারাইজার ধরে রাখতে সাহায্য করে। কিছু গলিত ঘি চুলে তেলের মতো করে ব্যবহার করুন। দেখবেন কেমন আশ্চর্যজনকভাবে কাজ করছে।

> ঘিতে ভিটামিন ‘এ’ থাকে, যা দৃষ্টিশক্তির জন্য ভালো। এটি চোখের চাপ কমাতে সাহায্য করে এবং গ্লুকোমা রোগীদের জন্য খুবই উপকারী।

> এটি শরীরের জয়েন্টগুলো ভালো রাখতে প্রয়োজনীয় তেল যোগাতে সাহায্য করে।

> ঘি এবং ঘি দিয়ে তৈরি খাবার হাড়ের গঠন স্থিতিশীল রাখে।

> ঘিতে প্রচুর পরিমাণ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ। যা শরীরে অন্যান্য খাবার থেকে ভিটামিন ও মিনারেল শোষণ করে ইমিউন সিস্টেম জোরদার করে।

> এটি পোড়া নিরাময়ে সাহায্য করে। ঘি মস্তিষ্কের সুরক্ষা ও স্মৃতিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে।

আরও পড়ুন
Loading...