জাপানি উপগ্রহের কাছে চীন, রাশিয়ার ‘কিলার স্যাটেলাইট’

জাপানের সরকারি সূত্র বলছে, চীনা ও রাশিয়ান ‘কিলার স্যাটেলাইটগুলো’ জাপানি কৃত্রিম উপগ্রহের কাছাকাছি শনাক্ত করা হয়েছিল। এতে করে উদ্বেগ বাড়ছে। কারণ তাদের মতে, জাপানের গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ ও প্রতিরক্ষা সক্ষমতার সিস্টেমগুলোকে অক্ষম বা ধ্বংস করার উপায় খোঁজছে রাশিয়া ও চীন।

টোকিওর এক উচ্চপদস্থ সরকারি কর্মকর্তার বরাত দিয়ে দেশটির স্থানীয় গণমাধ্যম ইয়মিউরি সংবাদপত্র জানিয়েছে, এই বছরের শুরুর দিকে ‘রাশিয়ান কসমস ২৫৪২’ স্যাটেলাইটকে বারবার জাপানি কৃত্রিম উপগ্রহের কাছে দেখা গেছে। এ বিষয়টি নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বারবার সতর্ক করেছে জাপানকে। জাপানি উপগ্রহের কাছে পরিদর্শন কালে মার্কিন স্যাটেলাইট বিষয়টি নজরে আনে।

বলা হচ্ছে, মার্কিন স্যাটেলাইটের কাছাকাছিও চলে গিয়েছিল রুশ মহকাশযান। ছবি তুলার মতো নিরাপদ দূরত্বে ছিল রুশ মহাকাশযান। স্যাটেলাইট ধ্বংস করার জন্য একটি শত্রুদের বেশি ক্ষতি করে এমন ছোট যন্ত্র ব্যবহার করা হয়েছিল।

ইয়মিউরি সংবাদপত্র জাপানের এক সরকারি কর্মকর্তা জানিয়েছেন, জাপানি উপগ্রহের কাছকাছি মহড়া চালিয়েছে চীন ও রাশিয়ার উপগ্রহগুলো। বিষয়টি নিয়ে ক্রমেই উদ্বেগ বাড়ছে জাপানজুড়ে।

দাইটো বুঙ্কা ইউনিভার্সিটির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক গাইরেন মুলয় বলেছেন, বিভিন্ন দেশের উপগ্রহ মাঝে মাঝে একে অপরের কাছে আসে। তবে উপগ্রগুলো আচরণের ধরণ দেখে মনে হচ্ছে বিষয়টি অনেক উদ্বেগজনক। চীনা বা রাশিয়ান উপগ্রগুলো বারবার জাপানের উপগ্রগুলোর কাছে আসছে। তিনি বলেন, জাপান ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যদি মহাকাশে আরো ভালোভাবে যোগাযোগ ও সহযোগিতা রক্ষা করে চলে; তাহলে উভয়ের জন্যই জয়ের পরিস্থিতি তৈরি হবে।

সূত্র: সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট।

আরও পড়ুন
Loading...