ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় নিয়ে সানির মত

পর্ন-তারকা থেকে বলিউডের অভিনেত্রী সানি লিওন। শুরুর দিকে একাধিক ছবিতে কেবল ঘনিষ্ঠ দৃশ্য ও নগ্ন দৃশ্যে অভিনয় করার সুযোগই আসত তার কাছে। অনেকের মতে, তার কারণ তার অতীত পেশা। কিন্তু আজ তাকে অন্য ধরনের চরিত্রেও দেখতে অভ্যস্ত হয়ে আসছেন দর্শকরা। মুক্তি পেতে চলেছে বিক্রম ভট্টের অ্যাকশন ছবি ‘অনামিকা’। সেই ছবির প্রসঙ্গেই সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিলেন সানি লিওন। সাক্ষাৎকারে সানি লিওন জানান, ঘনিষ্ঠ দৃশ্যকে তিনি আর পাঁচটি দৃশ্যের মতোই দেখেন। ‘ডিজনি’ শো ছাড়া এখন বহু ছবি বা ওয়েবসিরিজেই এই ধরনের দৃশ্যের প্রয়োজন পড়ে। তাই তিনি অন্য কিছু না ভেবে অভিনয়েই মন দেন।

সানি লিওন বলেন, সেটে উপস্থিত কলাকুশলীরা যেন অস্বস্তিকর পরিবেশ তৈরি না করেন, সে দিকে খেয়াল রাখাটা জরুরি। যদি কারো উদ্দেশ্য খারাপ হয়, তাঁকে তখনই সেট থেকে বের করে দেওয়া হয়। তাই পরিবেশটাকে সহজ করে দেওয়ার দায়িত্ব থাকে নির্মাতাদের ওপর।

তিনি বলেন, আমার গায়ের রঙ উজ্জ্বল ছিল। কিন্তু জিনগত কারণেই হাতে-পায়ে কালো পশমের কারণে আমায় অপমান সহ্য করতে হয়েছে। আমার জামাকাপড়, আমার লুকস এ সব কিছু নিয়েই হাসির পাত্র হতে হয়েছে আমাকে। সানি আরও বলেন, ‘এমন নয় যে, ছোটবেলায় করা ওই সব অপমানের রেশ তখনই শেষ হয়েছে। তার প্রভাব থেকেছে বহু বছর। আমার মতে ‘বুলিং’ মূলত একটি চক্র। নিজে অপমানিত হয়ে অন্যকে অপমান না করার অঙ্গীকার করলেই মনে হয় এই চক্রের অবসান ঘটবে।’

সূত্র: আনন্দবাজার।

আরও পড়ুন
Loading...