আনুকেতের পেটে অস্ত্রোপচার, বের হলো জুতা!

১০.৫ ফুট লম্বা একটি কুমির। এই কুমিরটি একটি জুতা খেয়েছিল। আর সেটা সাহসী চিকিৎসকরা অস্ত্রোপচার করে কুমিরের মুখের থেকে বের করে। এটা শুনে নিশ্চয়ই অবাক হয়েছেন, আর অবাক হওয়াটা স্বাভাবিক। কারণ কুমিরের মুখে হাত দিয়ে তার পেট থেকে জুতা বের করা অনেক সাহসের দরকার। আর সেটা হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে।

কুমিরটির নাম আনুকেত। এটি ভারতীয় প্রজাতির কুমির। ওই কুমিরটির কাছে এক দর্শনার্থীর পা থেকে জুতা নিচে পড়ে যায়, আর সে সেটা খেয়ে ফেলে। আর সেই জুতাটা অস্ত্রোপচার করে উদ্ধার করেছেন চিকিৎসকেরা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ফ্লোরিডা চিড়িয়াখানার পক্ষ থেকে দেয়া পোস্ট অনুযায়ী, গত ডিসেম্বর থেকে কুমিরটির পেটে সমস্যা শুরু হয়।

এই সেই জুতা

এই সেই জুতা

এর আগে সেন্ট অগাস্টাইন অ্যালিগেটর ফার্ম জুলজিকাল পার্কে ওই কুমিরটির কাছে এক দর্শনার্থীর পা থেকে জুতা নিচে পড়ে যায়, আনুকেত জুতাটি খেয়ে ফেলে। কুমিরটির পেট থেকে বিভিন্নভাবে জুতাটি বের করতে ব্যর্থ হয়ে অবশেষে ফ্লোরিডা ইউনিভার্সিটি অব ভেটেরিনারি মেডিসিনের পশু চিকিৎসকেরা ৫ ফেব্রুয়ারি আনুকেতের পেটে অস্ত্রোপচার করে।

জানা যায়, চিড়িয়াখানার ওষুধ সরবরাহকারী গ্যারেট ফ্রেইস নামের এক ব্যক্তি কুমিরটির খাদ্যনালী দিয়ে হাত ঢুকিয়ে জুতা সরিয়ে ফেলার চেষ্টা করেছিলেন। তবে ব্যর্থ হন তিনি। অনুকেতকে এর আগেও অন্ত্রপচারের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। তখন পশু চিকিৎসক অ্যাডাম বিয়েদারজাইকি জুতাটি পেট থেকে খাদ্যনালীতে ঠেলে পায়ুপথ দিয়ে বের করা সম্ভব বলে আশা করেছিলেন। তবে তার চেষ্টাও ব্যর্থ হয়ে যায়।

জুতা অপসারণ আরো সহজ করার জন্য বায়েদারজাইকি গ্যাস্ট্রোটমির ব্যবস্থা করেছিলেন। অবশেষে এবার তিনি সফল হন।জুতা অপসারণের পর আনুকেতকে তার বাসস্থানে ফিরিয়ে নেয়া হয়েছে এবং সে সুস্থ হয়ে উঠছে। চিড়িয়াখানার পক্ষ থেকে সর্বশেষ বলা হয়েছে, আনুকেত সম্পুর্ণ নিরিবিলি পরিবেশে চিড়িয়াখানায় সুস্থ হয়ে উঠছে। তবে আনুকেত আগের জায়গায় ফিরে যেতে আরো কিছুদিন সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা ।

আরও পড়ুন
Loading...